Tag Archives: সাব্বির রহমান

টি-২০ র‍্যাঙ্কিংয়ে বাংলাদেশের সেরা সাব্বির-মুস্তাফিজুর

ভারত-ইংল্যান্ড ও দক্ষিণ আফ্রিকা-শ্রীলঙ্কা টি-২০ সিরিজ শেষে টি-২০ র‍্যাঙ্কিং হালনাগাদ করেছে আইসিসি। সর্বশেষ র‍্যাঙ্কিং অনুসারে ব্যাটিংয়ে শীর্ষে রয়েছেন ভারতের ভিরাট কোহলি ও বোলিংয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার লেগ স্পিনার ইমরান তাহির। বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের মধ্যে ব্যাটিংয়ে সাব্বির রহমান ও বোলিংয়ে মুস্তাফিজুর রহমান সবার উপরে রয়েছেন।

ভারত বনাম ইংল্যান্ডের তিন ম্যাচের সিরিজে দারুণ পারফর্ম করেছেন জো রুট। ১২৬ রান করে সিরিজের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক হয়েছেন তিনি। এ পারফরম্যান্সে দুই ধাপ এগিয়ে সাত থেকে পাঁচে এসেছেন তিনি। এছাড়া চার ধাপ এগিয়েছেন রুটের সতীর্থ ইয়ন মরগান (বর্তমান অবস্থান ১১) ও দুই ধাপ এগিয়েছেন জস বাটলার (বর্তমান অবস্থান ১৮) । ভারতের লোকেশ রাহুল (বর্তমান অবস্থান ১৫) এক লাফে এগিয়েছেন ১৫ ধাপ।

র‍্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষে অবস্থান করা ভিরাট কোহলির রেটিং ৭৯৯। দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা অ্যারন ফিঞ্চের রেটিং ৭৭১। ফিঞ্চ থেকে ৮ রেটিং কম নিয়ে তৃতীয় অবস্থানে আছেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। টেবিলের চারে কেন উইলিয়ামসন (৭৫৮), পাঁচে জো রুট (৭৪৩), ছয়ে মার্টিন গাপটিল (৭০৯), সাতে মোহাম্মদ শাহজাদ (৭০৩), আটে ফাফ ডু প্লেসিস (৬৯৭), নয়ে এলেক্স হেলস (৬৬৪) ও দশে রয়েছেন হ্যামিলটন মাসাকাদজা (৬৫৬)। বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের মধ্যে সবচেয়ে ভালো অবস্থানে রয়েছেন সাব্বির রহমান। ৬৪৩ রেটিং নিয়ে ১২ নম্বরে রয়েছেন তিনি। তার পেছনে রয়েছেন ক্রিস গেইল ও ডেভিড ওয়ার্নার।

বোলিংয়ে সবচেয়ে লম্বা লাফ দিয়েছেন যুবেন্দ্র চাহাল। ভারতের  এ স্পিনার ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে শেষ ম্যাচে ছয় উইকেট নিয়ে র‍্যাঙ্কিংয়ে এক বিশাল পদোন্নতি পেয়েছেন। ৯২ ধাপ এগিয়ে বর্তমানে র‍্যাঙ্কিংয়ের ৮৬ নম্বরে রয়েছেন চাহাল। এছাড়া ৯ ধাপ  এগিয়ে ১৭ নম্বরে রয়েছেন পেসার ক্রিস জর্ডান, ২ ধাপ এগিয়ে ২৪ নম্বরে আছেন আশিষ নেহরা, ১১ ধাপ এগিয়ে ২৬ নম্বরে রয়েছেন নুয়ান কুলাসেকারা ও ৪৯ ধাপ এগিয়ে ৪৬ নম্বরে আছেন ইংল্যান্ডের মঈন আলি।

র‍্যাঙ্কিংয়ে এক নম্বরে রয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকার লেগ স্পিনার ইমরান তাহির (৭৬৮)। দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ভারতের পেসার জাসপ্রিত বুমরাহর রেটিং ৭৬৪। তিনে থাকা স্যামুয়েল বদ্রী জাসপ্রিত থেকে পিছিয়ে আছে ৪১ রেটিং। পাকিস্তানের ইমাদ ওয়াসিম (৭১৮) রয়েছেন চার নম্বরে। এছাড়া পাঁচ থেকে দশ নম্বরে রয়েছে যথাক্রমে রশিদ খান (৭০১), জেমস ফকনার (৬৭২), সুনীল নারাইন (৬৫২), রবিচন্দ্রন অশ্বিন (৬৪৪), মুস্তাফিজুর রহমান (৬৪৩) ও সাকিব আল হাসান (৬৩৬)।

বাংলাদেশের বোলারদের মধ্যে সবচেয়ে ভালো অবস্থানে আছেন নয়ে থাকা মুস্তাফিজুর। এছাড়া সাকিব দশে ও আল-আমিন হোসেন পঁচিশ নম্বরে রয়েছেন।

“ইন শা আল্লাহ আমরা এবার জিতব।”:সাব্বির রহমান

নিউজিল্যান্ড সিরিজে এখন পর্যন্ত জয়ের দেখা পায় নি বাংলাদেশ। একদিনের সিরিজে হোয়াইটওয়াশের পর প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচেও হেরেছে টাইগাররা। তবে প্রথম টি-টোয়েন্টিতে ভালো সম্ভাবনা তৈরী করেও পরে আর হয় নি। এদিকে আগামীকাল (শুক্রবার) দ্বিতীয় ম্যাচের আগে অনুশীলন শেষে সংবাদ সম্মেলনে পরের ম্যাচেও জেতার আশা ব্যক্ত করেছেন জাতীয় দলের মারকুটে ব্যাটসম্যান সাব্বির রহমান।

কোনো ম্যাচে ব্যাটিং এর জন্য, কোনো ম্যাচে বোলিং কিংবা ফিল্ডিং এর জন্য হারতে হয়েছে বাংলাদেশকে। তবে সব ফরমেটেই ভালো করে জেতার আশা ব্যক্ত করেছেন সাব্বির। তিনি বলেন, “এ খেলাটিও ব্যাটসম্যান-বোলার-ফিল্ডিং সবকিছুরই খেলা। সব সেক্টর মিলে ভালো খেলে জয়ের বন্দরে পৌঁছাতে হবে। শুক্রবার আমাদের সে লক্ষ্যই থাকবে। ইন শা আল্লাহ আমরা জিততে পারব।”

এদিকে নিউজিল্যান্ডের পক্ষে সাংবাদিকের সাথে কথা বলেন ট্রেন্ট বোল্ট। প্রথম ম্যাচে না খেললেও নিজের হোমগ্রাউন্ডে খেলার কথা আছে এই পেসারের। সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশকে সমীহ করলেও জয়ের কথা বলেছেন বোল্ট, “বাংলাদেশ দলেও বেশিকিছু ভালো খেলোয়াড় আছে। তাদের পরাস্ত করেই আমাদের জিততে হবে।”

উল্লেখ্য, আগামীকাল (শুক্রবার) বাংলাদেশ সময় সকাল ৮ টায় শুরু হবে বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচ।

‘সাব্বিরের অপরাধ’ করেও শাস্তি পাননি পাকিস্তানি ক্রিকেটার?

বিপিএলের সময় হোটেল কক্ষে নারী অতিথি ডেকে নিয়ে গিয়ে বড় শাস্তির মুখোমুখি হয়েছেন সাব্বির রহমান ও আল আমিন হোসেন। ব্যাপারটিকে ‘গুরুতর শৃঙ্খলাবহির্ভূত’ কাজ আখ্যা দিয়ে বিশাল অঙ্কের জরিমানা করা হয়েছে এ দুজনকে। দুজনের মিলিত জরিমানার অঙ্ক ২৫ লাখ টাকা। কিন্তু বার্তা সংস্থা পিটিআইয়ের একটি সংবাদে জানা গেছে, এবারের বিপিএলে একই ‘অপরাধ’ করে পার পেয়ে গেছেন পাকিস্তানের একজন ক্রিকেটার। সাব্বির, আল আমিনকে শাস্তি দেওয়া হলেও সেই পাকিস্তানি ক্রিকেটারের ব্যাপারে নিশ্চুপ থেকেছে বিপিএলের গভর্নিং কাউন্সিল।

পিটিআই অবশ্য সেই পাকিস্তানি ক্রিকেটারের পরিচয় প্রকাশ করেনি। তবে তিনি পাকিস্তানের বর্তমান জাতীয় দলের সদস্য বলে উল্লেখ করেছে। চট্টগ্রামে নিজের হোটেল কক্ষে ওই ক্রিকেটার একজন নারী অতিথিকে নিয়ে গিয়েছিলেন বলে জানিয়েছে পিটিআই। তাঁর শাস্তি না হলেও ফ্র্যাঞ্চাইজি অবশ্য শেষ পর্যন্ত তাঁকে দেশে ফেরত পাঠিয়ে দিয়েছিল।
বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল থেকে খেলোয়াড়দের নির্দিষ্ট করেই নারী অতিথিদের ব্যাপারে সতর্ক করে দেওয়া হয়েছিল। পাকিস্তানি ক্রিকেটার যে নারীকে নিজের কক্ষে নিয়ে গিয়েছিলেন, সেই নারী ছিলেন একজন বিদেশি নাগরিক। নিজস্ব সূত্রের বরাত দিয়ে পিটিআই জানিয়েছে, প্রথম থেকেই সেই নারীকে চোখে চোখে রেখেছিলেন বিপিএলের দুর্নীতি বিরোধী কর্মকর্তারা। পাকিস্তানি ক্রিকেটারকে হাতেনাতে ধরে নিরাপত্তা কর্মীরা নারীকে হোটেল কক্ষ থেকে বেরিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছিল।
সূত্রের বরাতে পিটিআই লিখেছে, পুরো বিষয়টিই পরে ধামাচাপা দেওয়া হয় শীর্ষ ক্রিকেট কর্তাদের হস্তক্ষেপে। তবে সেই পাকিস্তানি ক্রিকেটারের আচার-আচরণ নাকি ছিল যথেষ্ট আপত্তিকর। বিদেশি ক্রিকেটার বলেই তাঁকে শাস্তি দেওয়া যায়নি বলে জানিয়েছে সেই সূত্রটি।
এবারের বিপিএলে খেলার জন্য মোট ১৮ জন পাকিস্তানি ক্রিকেটারকে পিসিবির পক্ষ থেকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়।