Tag Archives: শফিউল ইসলাম

যেকারণে আবারও দল থেকে বাদ পড়লেন শফিউল

ক্যারিয়ারের প্রায় পুরোটা সময় জুড়ে ফিটনেস ফিরে পাওয়ার লড়াইয়ে থাকা শফিউল ইসলাম আরেকবার বাদ পড়েছেন চোট সমস্যায়। তার ফিটনেস নিয়ে পুরোপুরি সন্তুষ্ট নন নির্বাচকেরা।

নিউ জিল্যান্ড সফরে মিনহাজুল আবেদীনদের প্রথম পছন্দ ছিলেন শফিউল। বিপিএলে খেলার সময় চোট পাওয়ায় যাওয়া হয়নি তার। সুযোগ পান আরেক পেসার রুবেল হোসেন। চোট থেকে সেরে ভারতে একমাত্র টেস্টের দলে ফিরেন শফিউল। ম্যাচ না খেলেই বাদ পড়েছেন শ্রীলঙ্কা সিরিজের দল থেকে। প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন জানান, ফিটনেস সমস্যা থাকাতেই দলে নেই শফিউল।

“সিকান্দারাবাদে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার পর শফিউলের একটু সমস্যা হয়েছে। আমরা ওর ফিটনেস নিয়ে পুরোপুরি সন্তুষ্ট নই। এখন ওর ফিটনেসের লেভেলটা দেখতে হবে। সেই হিসেবে বিসিএলের ম্যাচের জন্য ওকে আমরা কনসিডার করছি এখন।”

নিউ জিল্যান্ড সফর থেকে ফিরে বিসিএলে দারুণ বোলিং করা রুবেলকে নিয়ে আশাবাদী প্রধান নির্বাচক। “রুবেল বিসিএলে পরপর তিনটি ম্যাচ খেলছে। সেখানে ভালো বোলিং করেছে। বিশেষ করে এই রাউন্ডের আগের রাউন্ডটায় অসাধারণ বোলিং করেছে। আমার মনে হয়, ওর এখন সামর্থ্য আছে টেস্ট ক্রিকেটকে কিছু দেওয়ার।”

বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগে (বিসিএল) দক্ষিণাঞ্চলের হয়ে খেলছেন রুবেল। ইনিংসে একবার পাঁচ উইকেটসহ দুই ম্যাচে ১০ উইকেট নিয়েছেন ২৭ বছর বয়সী এই পেসার। রুবেল এখন নিজের পূর্ণ গতিতে টানা ৮ ওভারের স্পেল নিয়মিতই করছেন রুবেল। বোলিংকে আরও কার্যকর করতে গতির সঙ্গে সুইং নিয়েও কাজ করছেন এই পেসার।

ফিটনেস সমস্যা বেশ ভোগাচ্ছে বাংলাদেশকে। মিনহাজুল জানান, এদিকটায় বাড়তি মনযোগ দিচ্ছেন তারা।

“এখানে ফিট দেখে আমরা নিয়ে যাচ্ছি, কিন্তু ওখানে গিয়ে সমস্যা হচ্ছে। এই মুহূর্তে ফিটনেসের ব্যাপারে আমরা অধিক মাত্রায় গুরুত্ব দিয়েছি। পুরোপুরি সুস্থ না হলে কাউকে নিয়ে যাওয়া খুব কঠিন ব্যাপার।”

ওয়ানডে সিরিজ জেতার আশা শফিউলের শফিউল ইসলাম

ইনজুরির কারণে নিউজিল্যান্ড সফরে যাওয়া হয়নি পেসার শফিউল ইসলামের। সতীর্থদের চেয়ে সাত সমুদ্র তের নদীর এপাড়ে থাকলেও মন পড়ে আছে দলের সঙ্গেই। দল নিয়ে ভাবছেন, স্বপ্ন দেখছেন ওয়ানডে সিরিজ জিতবে মাশরাফি বিন মুর্তজার দল। হাজার কিলোমিটার দূর থেকে এ ‘আশা’ সজীব রাখছে তাকে।

একটি জাতীয় দৈনিককে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে মূলত উঠে এসেছে শফিউলের ইনজুরির সর্বশেষ অবস্থা। এর মধ্যেই বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড সিরিজ নিয়ে নিজের আশাবাদের কথা জানালেন তিন ফরম্যাটে বাংলাদেশের হয়ে ৮৬ উইকেট নেওয়া এই ক্রিকেটার।

বললেন, ‘সিরিজ জেতার আশা তো যে কোনো দেশের বিপক্ষে খেলার আগেই করি। এবারও তার ব্যতিক্রম নয়। আর ২০১৫ বিশ্বকাপের আগে অচেনা কন্ডিশন-উইকেট নিয়ে অনেক কথা হয়েছে। তবু তো দল অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ডে দারুণ খেলেছে। এবারও তাই হবে। বাংলাদেশের সুবিধা হলো, দলে পাঁচ-ছয়জন ক্রিকেটার রয়েছেন যারা অনেক অভিজ্ঞ। ৮-১০-১৫ বছর ধরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলছেন। বিশ্বের খুব বেশি দলের কিন্তু এই সুবিধা নেই। সঙ্গে আমাদের তরুণ ক্রিকেটাররাও ভালো। সব মিলিয়ে আমি খুব আশাবাদী। যেহেতু ৫০ ওভারের ফরম্যাট দিয়ে শুরু হচ্ছে, এই ওয়ানডে সিরিজ জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী।’

বাংলাদেশ দলের তুরুপের তাস হতে পারেন ‘কাটার মাস্টার’ মুস্তাফিজুর রহমান। কিন্তু ইনজুরি থেকে উঠে আসা মুস্তাফিজ শতভাগ ফিট না হওয়া পর্যন্ত তাকে নিয়ে কোনো ধরনের ঝুঁকি নিতে নারাজ চান্দিকা হাতুরুসিংহের শিষ্যরা।  শফিউল নিজেও মুস্তাফিজের ফিট হওয়ার ব্যাপারটাকেই গুরুত্ব দিচ্ছেন। একই সঙ্গে এটাও মানছেন, মুস্তাফিজের তুলনা মুস্তাফিজ নিজেই।

তার ভাষায়, ‘সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ মুস্তাফিজ কতটা ফিট। যদি টিম ম্যানেজমেন্ট মনে করে মুস্তাফিজ খেলবে; তাহলে এতদিন মাঠের বাইরে থাকা ওর জন্য কোনো সমস্যা না। কারণ মুস্তাফিজ মুস্তাফিজই। নিউজিল্যান্ডে খেললে ও দলের জন্য অনেক অবদান রাখবে।’

নিউজিল্যান্ড সফরে অনিশ্চিত শফিউল

বিপিএলে সময়টা দারুণ কাটছিল। দল খুলনা টাইটান্সের পাশাপাশি দুর্বার গতিতে এগিয়ে যাচ্ছিলেন পেসার শফিউল ইসলামও। ১৩ ম্যাচ থেকে তুলে নিয়েছিলেন ১৮ উইকেট। কিন্তু ইনজুরির ছোবলে মাঠ থেকে ছিটকে গেলেন ডানহাতি এই পেসার। বিপিএলের আর কোনো ম্যাচ খেলতে পারছেন না শফিউল।

শুধু বিপিএলই নয়, নিউজিল্যান্ড সিরিজেও অনিশ্চিত হয়ে পড়েছেন শফিউল। হ্যামস্ট্রিংয়ের যে ইনজুরি হয়েছে তাতে কমপক্ষে দুই-তিন সপ্তাহ মাঠের বাইরে থাকতে হবে তাকে। ৬ ডিসেম্বর প্রথম কোয়ালিফায়ার ম্যাচে ঢাকা ডায়নাইটসের বিপক্ষে ম্যাচে ফিল্ডিং করতে গিয়ে চোট পান শফিউল।

নিজের ইনজুরি নিয়ে শফিউল ইসলাম প্রিয়.কমকে বলেন, ‘শেষ ম্যাচটা খেলার সময় ফিল্ডিং করতে গিয়ে চোট পেযেছি। হ্যামস্ট্রিং ইনজুরি হয়েছে। ব্যথা আছে। আজ এমআরআই করিয়েছি। রিপোর্ট এখনও আসেনি। আজ রাজশাহীর বিপক্ষে খেলতে পারছি না। নিউজিল্যান্ড সফর কী হবে সেটাও বুঝতে পারছি না। রিপোর্ট দেখার পরপর আসলে বোঝা যাবে কী অবস্থা’।

শফিউলের ইনজুরি নিয়ে বিসিবির চিকিৎসক দেবাশিষ চৌধুরী প্রিয়.কমকে বলেন, ‘শফিউলকে দেখিনি আমরা এখনও। ও বিশ্রামে আছে। এমআরআই রিপোর্ট করিয়েছে। আমরা অফিসিয়াল রিপোর্টের অপেক্ষায় আছি। এমনিতে হ্যামস্ট্রিংয়ের ইনজুরি। আজ খেলতে পারছে কি না আমি বলতে পারছি না। আমি যেটা বুঝতে পারছি এটা হ্যামস্ট্রিং ইনজুরি। আর হ্যামস্ট্রিংয়ের অল্প ইনজুরি হলেও দু্ই-তিন সপ্তাহ লেগে যাবে। আমি যেটা আনঅফিসিয়াল শুনেছি হ্যামস্ট্রিং স্ট্রেইন আছে। এটা হলে তিন সপ্তাহের আগে কিছুই হবে না।’

দেবাশিষ চৌধুরী দুই-তিন সপ্তাহ বললেও আরেকটি সূত্র জানিয়েছে, মাঠে ফিরতে ফিরতে প্রায় দেড় মাস সময় লেগে যেতে পারে শফিউলের। তাই বাধ্য হয়ে তার জায়গায় অন্য কোনো পেসারকে দলে নেয়ার জন্য ভাবতেই হচ্ছে জাতীয় দলের নির্বাচকদের। শফিউলের আগে ইনজুরির কারণে বিপিএল ও নিউজিল্যান্ড সফর শেষ হয়ে গেছে ঢাকার পেসার মোহাম্মদ শহীদের। ২৬ নভেম্বর কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের বিপক্ষে ফিল্ডিং করতে গিয়ে ডান হাঁটুতে চোট পান শহীদ। তার জায়গায় দলে নেওয়া হয়েছে রুবেল হোসনকে।