Tag Archives: মোহাম্মদ শহীদ

শহীদের সফল অস্ত্রোপচার সম্পন্ন

সফলভাবে মোহাম্মদ শহীদের হাঁটুর অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হয়েছে। গেল বুধবার অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নে বিখ্যাত শল্য চিকিৎসক ডেভিড ইয়াংয়ের তত্ত্বাবধানে শহীদের বাম হাঁটুতে অস্ট্রোপচার করা হয়।

তিনদিনের মাথায় শুক্রবার তাকে হসপিটাল থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়।

এ ব্যাপারে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) চিকিৎসক ডাক্তার দেবাশীষ চৌধুরী বলেন, ‘বুধবার শহীদের হাঁটুতে অস্ত্রোপচার করা হয়েছে, শুক্রবার হাসপাতাল থেকে সে রিলিজ পেয়েছে। চলতি সপ্তাহেই তার বাংলাদেশে ফেরার কথা রয়েছে।’

অস্ত্রোপচার সফলভাবে সম্পন্ন হয়েছে উল্লেখ করে তিনি আরো বলেন, ‘সার্জারী সফল হয়েছে। দেশে ফিরে পুনর্বাসন প্রক্রিয়া শুরু হবে। সব মিলিয়ে তিনমাস তাকে মাঠের বাইরে থাকতে হচ্ছে।’

দলের পেসার সংকটে টেস্ট ক্রিকেটে নির্ভরতার প্রতীক হয়ে এসেছিলেন পাঁচ টেস্টে পাঁচ উইকেট নেওয়া শহীদ। ২০১৬ বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের বিপক্ষে ঢাকা ডায়নামাইটসের হয়ে খেলতে গিয়ে ইনজুরিতে পড়েন তিনি।

এরপর থেকেই মাঠের বাইরে এই পেসার। ইনজুরির কারণে নিউজিল্যান্ড ও ভারত সফরে যাওয়া হয়নি তার।

সূত্র: ঢাকা ট্রিবিউন

মোহাম্মদ শহীদের লিগামেন্টে অস্ত্রোপচার মঙ্গলবার

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের চতুর্থ আসরে মোহাম্মদ শহীদ ফর্মের তুঙ্গে থেকে একের পর এক ম্যাচে যখন প্রতিপক্ষ ব্যাটসম্যানদের ভীতির কারণছিসেবে নিজেকে প্রমাণ করছেন ঠিক তখনই ইঞ্জুরি কাল হয়ে দাঁড়ায়। ফিল্ডিংয়ের সময় ডান হাঁটুতে চোট পেয়ে বিপিএল থেকে ছিটকে যেতে হয় জাতীয় দলের এ গতিতারকাকে। শুধু কি তাই? বিপিএলে পাওয়া চোটের জন্য জাতীয় দলের সাথে নিউজিল্যান্ড ও ভারত সফর থেকেও বাদ পড়েন তিনি।

তবে আশার বাণী হলো কিছুটা দেরীতে হলেও পুরোদমে সেরে উঠার লক্ষ্যে শেষ পর্যন্ত অস্ত্রোপচার করাতে অস্ট্রেলিয়া যাচ্ছেন তিনি। বিশেষজ্ঞ শল্যবিদ ডেভিড ইয়াংয়ের অধীনে ডান পায়ের লিগামেন্টে অস্ত্রোপচার করাতে রবিবার দেশ ছাড়ছেন তিনি।

অস্ত্রোপচারের জন্য দেশ ছাড়ার আগে শনিবার গণমাধ্যমের সাথে কথা বলেন জাতীয় দলের ডানহাতি পেসার মোহাম্মোদ শহীদ। মঙ্গলবার তার ডান পায়ের লিগামেন্টে ডেভিড ইয়াংয়ের তত্ত্বাবধানে অস্ত্রোপচার করা হবে বলে এসময় তিনি জানান। সেই সাথে অস্ত্রোপচারের পর সুস্থ হয়ে আবারো জাতীয় দলের জার্সি গায়ে মাঠ মাতানোর প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের চতুর্থ আসরের চ্যাম্পিয়ন দল ঢাকা ডায়নামাইটসের হয়ে ৮ ম্যাচ খেলে অসাধারণ বল করে ১৫ উইকেট শিকার করেন মোহাম্মদ শহীদ। ডায়নামাইটস ও কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের মধ্যকার খেলা চলাকালীন সময়ে বাউন্ডারি সীমানা থেকে ঝাঁপিয়ে পড়ে একটি চার বাঁচাতে গেলে ডান হাঁটুতে আঘাতপ্রাপ্ত হন শহীদ। পরবর্তীতে চোটের ধরণ সুবিধাজনক না হলে মাঝপথে বিপিএল থেকেই ছিটকে যেতে হয় তাকে

ইনজুরি সারাতে অস্ট্রেলিয়া যাচ্ছেন শহীদ

হাঁটুর ইনজুরির কারণে মাঠের বাইরে থাকা পেসার মোহাম্মদ শহীদ ইনজুরি কাটিয়ে উঠতে এবার উড়াল দিচ্ছেন অস্ট্রেলিয়ার বিমানে। সেখানে অস্ট্রেলিয়ার বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ডেভিড ইয়াংয়ের তত্ত্বাবধানে থাকবেন তিনি।

সর্বশেষ বিপিএল চলাকালীন সময়ে ফিল্ডিং করতে গিয়ে হাঁটুতে চোট পান ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটর্সের এই ক্রিকেটার। টুর্নামেন্টের মাঝপথে ছিটকে গিয়ে এরপর আর ক্রিকেটে ফেরা হয়নি শহীদের। মাঠের বাইরে ছিটকে যাওয়ার আগে ৮ ম্যাচে শহীদের শিকার করা উইকেট সংখ্যা ছিল ১৫টি।

ঐ ইনজুরির পর থেকেই ক্রিকেট থেকে দূরে আছেন ২৮ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার। দীর্ঘদিন পুনর্বাসনের পরও সুস্থ না হওয়ায় এবার বিসিবির উদ্যোগে তাকে পাঠানো হচ্ছে অস্ট্রেলিয়ায়। এজন্য আগামী সপ্তাহেই তিনি বাংলাদেশ ছাড়বেন বলে জানিয়েছেন বিসিবির চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী।

ইনজুরি সারাতে শহীদকে ডাক্তার ডেভিড ইয়াংয়ের ছুঁড়ির নিচে যেতে হবে কি না তা এখনও নিশ্চিত নয় জানিয়ে দেবাশীষ বলেন, ‘আমাদের ধারণা তার অস্ত্রোপচার লাগতে পারে। কিন্তু শেষ সিদ্ধান্ত যিনি অস্ত্রোপচার করবেন, তিনিই দেবেন। আপাতত অস্ট্রেলিয়ায় মেলবোর্নে ডেভিড ইয়াংয়ের কাছেই যাচ্ছে শহীদ।’ তিনি আরও বলেন, ‘মাস খানেক ধরে আমরা ওর পুনর্বাসনের চেষ্টা করছি। কিন্তু আমাদের মনে হচ্ছিল, পুনর্বাসনেও হয়তো পুরোপুরি রিকভারি হবে না। এজন্য আমরা অস্ট্রেলিয়ায় বিশেষজ্ঞ সার্জনের কাছে পাঠানোর চেষ্টা করছি। সব লজিস্টিক ব্যাপার ঠিক হলে আশা করছি, সামনের সপ্তাহে ও অস্ট্রেলিয়ায় যাবে।’

ইনজুরিতে থাকা আরেক পেসার মোহাম্মদ শহীদকে পাওয়া যাবেনা এই সিরিজে

 

 

ইনজুরিতে থাকা আরেক পেসার মোহাম্মদ শহীদকে পাওয়া যাবেনা এই সিরিজে। হাঁটুর ইনজুরির সার্জারির জন্য এ মাসেই তাকে অস্ট্রেলিয়া পাঠানো হতে পারে বলেও জানান বিসিবির এই চিকিৎসক।হাঁটুর চোটে মাঠের বাইরে ছিটকে পড়া আরেক ইনফর্ম পেসার শহীদের কিউইদের বিপক্ষে দলে ফেরার আশা একেবারেই ছেড়ে দিতে হচ্ছে। টাইগারদের টেস্ট জার্সিতে নিয়মিত হয়ে ওঠা এই পেসারকে এ মাসেই যেতে হবে ছুরি কাঁচির নিচে।

হাঁটুতে অস্ত্রোপচার করাতে হবে শহীদকে

সব কিছু ঠিকঠাকভাবেই এগোচ্ছিল। ফর্মটাও যাচ্ছিল দারুণ। সদ্য সম্পাপ্ত বিপিএলে ঢাকা ডায়নামাইটসের হয়ে খেলতে নামলেই উইকেটের দেখা পাচ্ছিলেন মোহাম্মদ শহীদ। আট ম্যাচ থেকেই ১৫ উইকেট তুলে নেন ডানহাতি এই বাংলাদেশি পেসার। কিন্তু ইনজুরির হানায় বিপিএল শেষ করতে পারেননি তিনি, যেতে পারেননি নিউজিল্যান্ড সফরেও।

ডান হাঁটুর ইনজুরিটা যে তাকে ভালোই ভোগাবে, সেটা বোঝা যাচ্ছে। ফিট হয়ে মাঠে ফিরতে তিন-চার সপ্তাহের বদলে দুই-তিন মাস বা তার চেয়েও বেশি সময় লেগে যেতে পারে শহীদের। কারণ শহীদকে হাঁটুতে অস্ত্রোপচার করার পরামর্শ দিয়েছেন বিসিবির চিকিৎসক দেবাশিষ চৌধুরী। রোববার মিরপুর অ্যাকাডেমি মাঠে এমনটাই জানিয়েছেন শহীদ। তবে ডানহাতি এই পেসার অস্ত্রোপচার করানোর বিপক্ষে।

অস্ত্রোপচার না করালে মাঝে মধ্যেই ব্যথা করবে জেনেও শহীদ বলছেন, ‘অপারেশনের পক্ষপাতী আমি না। ডাক্তাররা আমার ভবিষ্যৎ চিন্তা করছে। অপারেশন করালে আমাকে ব্যাথা নিয়ে চিন্তা করতে হবে না। ফ্রেশভাবে আমি খেলতে পারব। যদি না করি, হালকা-পাতলা ব্যাথা থাকবে, ওটা আমার জন্য কঠিন হবে।’

বিপিএলে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের বিপক্ষে ফিল্ডিং করতে গিয়ে ডান হাঁটুতে চোট পাওয়া শহীদের পুনর্বাসন প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে শনিবার। এ পর্যায়ে তাকে দেখে চিকিৎসকরা অস্ত্রোপচারের পরামর্শ দিচ্ছেন। শহীদ বলেন, ‘গতকাল থেকে রিহ্যাব শুরু হয়েছে। ব্যাথা অনেক আগেই চলে গেছে। দেবাশিষ স্যার বলেছেন ভালো কিছু চাইলে অপারেশন করানো ভালো। অপারেশন না করালে কিছুটা সমস্যা হতে পারে।’

তবে অস্ত্রোপচারের বিষয়টি পুরোপুরি শহীদের ওপর নির্ভর করছে না। শহীদের হাঁটুর সর্বশেষ অবস্থা আরও একবার ভালো করে দেখবেন দেবাশিষ চৌধুরী। এরপর অস্ত্রোপচারের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানান শহীদ। তিনি বলেন, ‘কাল (সোমবার) হয়তো সিদ্ধান্ত হবে। কাল দেবাশিষ স্যার আসছেন, আসার পার সিদ্ধান্ত হবে। অপারেশন না করলে হয়তো এক সপ্তাহ পর বোলিং শুরু করব।’

দা্রুণ ছন্দে থাকার পরও ইনজুরির কারণে নিউজিল্যান্ড যাওয়া হলো না। কতটা মিস করছেন? এ প্রশ্নের জবাবে বাংলাদেশের এই পেসার বলেন, ‘অনেক মিস করছি। এখন আমার অস্ট্রেলিয়ায় থাকার কথা ছিল, আর এখন আমি অ্যাকাডেমিতে। সব কিছুই ভালো ছিল। উপর আল্লাহ যা করেন, ভালোর জন্যই করেন। আমিও জানতাম না ইনজুরি হয়ে যাবে। তাহলে হয়তো ড্রাইভ দিতাম না।’

সম্পাদনা: কাওসার মুজিব অপূর্ব/নাজমুল হাসান শান্ত