Tag Archives: নুরুল হাসান সোহান

অভিষেকে খুশি নুরুল হাসান

৪৯টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচে ৪১.৮১ গড়ে প্রায় আড়াই হাজার রান। ১৩টি ফিফটি আর ৫টি সেঞ্চুরির মধ্যে সর্বোচ্চ ইনিংস অপরাজিত ১৮২ রানের। এমন একজন ক্রিকেটারের টেস্ট অভিষেক মানেই সম্ভাবনাময় কিছু। ক্রাইস্টচার্চে নিজের প্রথম টেস্টে সে সম্ভাবনা কি দেখাতে পারলেন নুরুল হাসান?
তিন রানের জন্য অভিষেক টেস্টে ফিফটি করতে পারেননি। তবে ১৭৩ মিনিট উইকেটে থেকে ৯৮ বলে ৪৭ রানের ইনিংস জানিয়ে দিয়েছে যথেষ্ট পরিণত হয়েই নুরুল পা রেখেছেন ক্রিকেটের সর্বোচ্চ আঙিনায়। প্রথম টেস্ট খেলতে নামা আরেক ক্রিকেটার নাজমুল হোসেনের সঙ্গে ষষ্ঠ উইকেটে তাঁর ৫৩ রানের জুটিতে মনেই হয়নি হ্যাগলি ওভালে তখন দুই প্রান্তে দুজন অভিষিক্ত ব্যাটসম্যান। উইকেটের পেছনেও এর মধ্যেই দুটি ক্যাচ নিয়েছেন নুরুল হাসান। দলের অবস্থাও যথেষ্ট ভালো। সব মিলিয়ে অভিষেক টেস্টটা এখন পর্যন্ত ভালোই কেটেছে নুরুল হাসানের।
বৃষ্টিতে তৃতীয় দিনের খেলা পরিত্যক্ত হয়ে যাওয়ার পর হ্যাগলি ওভালে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হলেন ২১ বছর বয়সী উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান। ইতিবাচক মানসিকতা নিয়ে টেস্ট খেলতে নেমে এখন পর্যন্ত ইতিবাচক তিনি, ‘অভিষেক টেস্টটা আল্লাহর রহমতে ভালোই হচ্ছে। টেস্টের আরও দুই দিন বাকি আছে; দল হিসেবে ভালো খেলতে পারলে ইনশা আল্লাহ ভালো ফল হবে। দুই দিনে অনেক কিছুই সম্ভব। আমরা অন্তত ইতিবাচকভাবেই চিন্তা করছি।’
অভিষেক ম্যাচের রোমাঞ্চ সবার মধ্যেই থাকে, ছিল নুরুল হাসানের মধ্যেও। তবে মাঠে নামার পর সব উধাও। শুধু খেলার চিন্তাই নাকি ছিল তখন মাথায়, ‘মাঠে নামার পর আর কিছু চিন্তা করিনি। স্বাভাবিক খেলাটাই খেলার চেষ্টা করেছি। আমাদের কন্ডিশনের চেয়ে এখানে উইকেট একটু ভিন্ন। ওদের ওয়ানডের উইকেটের চেয়েও টেস্ট ম্যাচের উইকেট ভিন্ন। একটু দেখেশুনে খেলার ইচ্ছা ছিল, যেন সময় নিয়ে খেলতে পারি।’
ওয়ানডে, টি-টোয়েন্টিতে একটু মারমুখী ব্যাটিং পছন্দ নুরুল হাসানের। টেস্টে সেভাবে খেলার সুযোগ স্বাভাবিকভাবেই সংকুচিত হয়ে আসে। তবু মারার বলে মারাটাই দর্শন এই তরুণের। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটেও সেভাবে খেলেই ভালো কয়েকটি ইনিংস আছে তাঁর। ক্রাইস্টচার্চ টেস্টের প্রথম ইনিংসেও খেলেছেন সেভাবেই, ‘প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট যেভাবে খেলেছি, সেভাবেই খেলার চেষ্টা করেছি এখানে। তবে কন্ডিশনের কারণে টেকনিক কিছুটা পরিবর্তন করে ব্যাটিং করেছি।’
অভিষেকটা এখন পর্যন্ত ভালো। বাকি দুটি দিন ভালো কাটলে ক্রাইস্টচার্চ থেকে সারা জীবন মনে রাখার মতো কিছু নিয়েই দেশে ফিরতে পারবেন তিনি

সোহান-শান্তর প্রথম টেস্ট

অবশেষে ধরা দিল স্বপ্ন! সিনিয়র ক্রিকেটারদের ইনজুরি কারো কাম্য না হলেও এই ব্যাপারটাই মর্যাদার সাদা পোশাক গায়ে চাপানোর সুযোগ করে দিয়েছে নুরুল হাসান সোহান ও নাজমুল হোসেন শান্তকে। ক্রাইস্টচার্চে সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্টের একাদশে ঢোকার সাথে সাথেই টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক ঘটেছে এই দুই ব্যাটসম্যানের।

সোহান মূলত সুযোগ পেয়েছেন উইকেটরক্ষক হিসেবে, সে হিসেবে তিনি নিয়মিত অধিনায়ক মুশফিকুর রহিমের বদলি। নিখাদ টেস্ট ব্যাটসম্যান মুমিনুল হকের ইনজুরি একই সুযোগ করে দিয়েছে শান্তকে। বাংলাদেশের পক্ষে ৮৪ ও ৮৫ নম্বর টেস্ট ক্যাপের অধিকারী এই দুজন।

গত নভেম্বরে ২৩ বছর পূর্ণ করা সোহান জাতীয় দলের হয়ে খেলেছেন ৯টি ওয়ানডে ও ২টি টি২০ ম্যাচ, সাথে আছে ৪৯টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতাও। অপরদিকে ১৮ বছর বয়সী শান্তর এটিই প্রথম আন্তর্জাতিক ম্যাচ। তার ঝুলিতে আছে ১২টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা।

এই ম্যাচেই অবশ্য অভিষেক ঘটছে তামিম ইকবালের! তবে তা অধিনায়ক হিসেবে। মুশফিকের অনুপস্থিতিতে নিয়মিত সহ-অধিনায়ক তামিমই নেতৃত্ব দিচ্ছেন বাংলাদেশ দলকে।

আজ উইকেট রক্ষক নুরুল হাসান সোহানের অভিষেক

প্রথম ওয়ানডেতে নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে তেমন কোনো প্রতিদ্বন্দীতা গড়ে তুলতে পারেনি বাংলাদেশ। টাইগারদের জন্য দ্বিতীয় ওয়ানডেটা সিরিজ সমতা আনার। তবে নেলসনে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে বাংলাদেশ সময় ভোর চারটায় মাঠে নামার আগে চোট সমস্যায় জর্জরিত বাংলাদেশ।

প্রথম ওয়ানডেতে হতাশাজনক পারফরম্যান্স করেছে টপ অর্ডার। ব্যাট হাতে বড় স্কোর গড়তে পারেননি ইমরুল কায়েস, সৌম্য সরকার ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। বোলিংয়ে মোটেও সুবিধা করতে পারেননি পেসার তাসকিন আহমেদ। চার জন বোলার নিয়ে মাঠে নেমেছিলো বাংলাদেশ। সাবলীল ব্যাটিং করে কিউইরা দাঁড় করিয়েছিলো ৩৪১ রানের পাহাড়। ফিল্ডিংও ছিল ছন্দহীন। প্রাপ্তি বলতে সাকিব আল হাসান ও মোসাদ্দেক হোসেনের পারফরম্যান্স।

সিরিজে ফেরার জন্য দ্বিতীয় ম্যাচে জয়ের কোনো বিকল্প নেই বাংলাদেশের। তবে বাংলাদেশের জন্য রয়েছে বেশ কিছু দুঃসংবাদ। নিয়মিত উইকেট রক্ষক মুশফিকুর রহিম প্রথম ওয়ানডেতে হ্যামস্ট্রিংয়ের চোট পান। এ কারণে দ্বিতীয় ও তৃতীয় ম্যাচে মুশফিককে পাবে না বাংলাদেশ। তাই উইকেট রক্ষক নুরুল হাসান সোহানের অভিষেক হওয়া এখন সময়ের ব্যাপার।