Tag Archives: চান্দিকা হাতুরুসিংহ

তামিম ‘বিভ্রমে’ হতাশ হাতুরুসিংহে

হাফ সেঞ্চুরির পর ইনিংসের ৩৬তম ওভারে লাকসান সান্দাকানের বল তামিম ইকবালের ব্যাট ফাঁকি দিয়ে লঙ্কান উইকেটরক্ষক নিরোসান ডিকভেলার হাতে জমা পড়ে। এমন সময় বুঝে উঠতে না পেরে হঠাৎ করেই রান নেওয়ার উদ্দেশে দৌর শুরু করেন তামিম। এই সুযোগে উইকেট ভেঙে দেন উইকেটরক্ষক ডিকভেলা। রান আউটের শিকার হয়ে ব্যক্তিগত ৫৭ রানে সাজঘরে ফেরেন তামিম।

বিনা উইকেটে ১০০ রান করা বাংলাদেশ দ্বিতীয় দিন শেষ করে দুই উইকেটে ১৩৩ রান নিয়ে। দিন শেষে তামিমের সেই অদ্ভুত আউটটাই আলোচনা কেন্দ্রবিন্দুতে। জাতীয় দলের প্রধান কোচ চান্দিকা হাতুরুসিংহে তামিমের এই আউটকে বললেন বললেন ‘ব্রেইন ফেড’! এর মানে ক্ষণিকের জন্য মতিভ্রম ঘটেছিল বাংলাদেশের এই ওপেনারের।

দিনের খেলা শেষে সংবাদ সম্মেলনে এসে তামিমের আউট নিয়ে কোচ হাতুরুসিংহে বললেন, ‘তার সঙ্গে আমার কথা হয়নি। আমার মাথায় যা আসছে তা এখন ক্রিকেটের আলোচিত শব্দ ‘ব্রেইন ফেড’। এখানে ঠিক তাই ঘটেছে, হয়তো ভেবেছিল বল উইকেটরক্ষককে ছাড়িয়ে গেছে। এজন্য সে দৌড় শুরু করেছিল। আমি শুধু বলতে পারি, এটা ব্রেইন ফেড।’

তামিমের এমন অদ্ভুত আউট নিয়ে হতাশা থাকলেও শিষ্যর ইনিংস নিয়ে প্রশংসা করতে ভোলেননি হাতুরুসিংহে, ‘এটা খুব হতাশাজনক, কারণ তখন আমরা ভালোভাবে এগিয়ে যাচ্ছিলাম। ওরা খুব ভালো ব্যাটিং করছিল। বিশেষ করে তামিম যেভাবে ইনিংসটি সাজাচ্ছিল তা সত্যিই আমাকে মুগ্ধ করেছে। এমন সময় তামিমের আউটটা সত্যি হতাশার।’

‘মুশফিক থাকলে ভিন্নভাবে দল সাজাতাম’:চান্দিকা হাতুরুসিংহে

কোচ চান্দিকা হাতুরুসিংহের সঙ্গে মুশফিকুর রহিম।ছবি: সংগৃহীত

তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথমটিতে ৭৭ রানের হার দিয়েই নিউজিল্যান্ড মিশন শুরু করেছে বাংলাদেশ। বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় ম্যাচে নেলসনের স্যাক্সটন ওভালে মাঠে নামবেন মাশরাফি-সাকিব-তামিমরা। কিন্তু হ্যামস্ট্রিং ইনজুরির কারণে এই ম্যাচে দলে নেই উইকেটরক্ষক ও ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম। শুধু দ্বিতীয় ওয়ানডেই নয়, সিরিজের শেষ ওয়ানডেতেও দর্শকের ভূমিকায় দেখা যাবে সাদা পোশাকে বাংলাদেশ দলের অধিনায়ককে।

সিরিজের শেষ দুই ওয়ানডেতে মুশফিকের জায়গায় ডাক পেয়েছেন নুরুল হাসান সোহান। তবে দ্বিতীয় ওয়ানডের আগে দলের নিয়মিত সদস্যকে হারিয়ে ফেলার আক্ষেপ শোনা গেল দলের প্রধান কোচ চান্দিকা হাতুরুসিংহের কণ্ঠে। তার মতে, এমন ম্যাচে মুশফিককে হারানো দলের জন্য বড় ধাক্কা। একাদশেও আনতে হয়েছে পরিবর্তন। তবে যদি মুশফিক সুস্থ থাকতেন তবে অন্যভাবে দল সাজাতেন তিনি।

ম্যাচ পূর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলনে এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশের লঙ্কান এই কোচ বলেন, ‘মুশফিক দীর্ঘদিন ধরেই তিন সংস্করণেই আমাদের দলের অন্যতম সেরা পারফর্মার। ব্যাটসম্যান হিসেবে তো বটেই, উইকেটকিপার হিসেবেও। তাকে হারানোটা অবশ্যই বড় এক ধাক্কা। তবে খেলোয়াড়দের চোট খেলার অবিচ্ছেদ্য অংশই।’

তিনি আরও বলেন, ‘মুশফিক আমাদের দলের অপরিহার্য অংশ। তবে ছেলেরা আত্মবিশ্বাসী। মাত্রই টিম মিটিং হলো। আমি খেয়াল করলাম, ছেলেরা আগের ম্যাচের চেয়েও এখন বেশি আত্মবিশ্বাসী। মুশফিক যদি দলে থাকতো তাহলে আমরা ভিন্নভাবে দল সাজাতাম।’

এই ইনজুরিই মুশফিককে মাঠের বাইরে পাঠিয়ে দেয়। ছবি: বিসিবি

মুশফিকের ইনজুরিতে ওয়ানডেতে অভিষেক ঘটতে যাচ্ছে জাতীয় দলের জার্সি গায়ে ছয়টি ওয়ানডে খেলা নুরুল হাসান সোহানের। এ প্রসঙ্গে হাতুরুসিংহে বলেন, ‘দলে মুশফিকের জায়গায় সোহান ঢুকেছে। ব্যাট হাতে সে ভালো করার সক্ষমতা রাখে। তবে, আমি এটা বলছি না যে, সে মুশফিকের মতো ভালো। কিন্তু সে ইতোমধ্যে কয়েকটি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছে। সে নিজে ভালো করার ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী। এখন আমরা মাঠের উপর ভিত্তি করেই স্কোয়াড সাজাব।’

দলের অবিচ্ছেদ্য অংশ হয়ে ওঠা মুশফিক গত ছয় বছরে লাল-সবুজের হয়ে সবগুলো ওয়ানডে ম্যাচেই অংশ নিয়েছেন।২০১০ সালের ১৫ জুলাই থেকে শুরু করে চলতি বছরের ২৬ ডিসেম্বর – ছয় বছরের বেশি এই সময়ে বাংলাদেশের হয়ে সবগুলো ওয়ানডে ম্যাচে দলে ছিলেন তিনি।

সোমবার কিউইদের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডেতে ৩৮তম ওভারে দ্রুত সিংগেল নিতে গিয়ে বাঁ পায়ের হ্যামস্ট্রিংয়ে টান লাগে মুশফিকের। পরে রান নিতে গিয়ে ডাইভ দিলে আবারও ব্যথা পান।এতে ম্যাচের মধ্যখানেই মাঠ ছাড়তে হয় তাকে।এই চোট তাকে দ্বিতীয় ও তৃতীয় ওয়ানডে থেকে ছিটকে দেয়।

এমনকি ১২ জানুয়ারি থেকে শুরু হওয়া টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচে মুশফিককে পাওয়া নিয়েও দেখা দিয়েছে শঙ্কা।

খেলার সর্বশেষ নিউজ পেতে সঙ্গে থাকেন……….

%d bloggers like this: