প্রথমবারের মতো আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির সেমিফাইনালে উঠেছে বাংলাদেশ। সাকিব আল হাসান-মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের রেকর্ড ২২৪ রানের জুটিতে স্মৃতিময় কার্ডিফে শুক্রবার (৯ জুন) নিউজিল্যান্ডকে পাঁচ উইকেটে হারানোয় বাংলাদেশ রচনা করতে পেরেছে এই বীরত্বগাথা। এই জয়ের পর থেকেই বাংলাদেশ প্রশংসায় ভাসছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম থেকে শুরু করে কিংবদন্তী ক্রিকেটার, সবখানেই বাংলাদেশের জয়জয়কার। এই তালিকায় এবার নাম লেখালেন নিউজিল্যান্ডের সাবেক ফাস্ট বোলার শেন বন্ড।

শুক্রবার ২৬৬ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে ৩৩ রানেই চার উইকেট হারায় বাংলাদেশ। স্কোরকার্ডের এমন রুপ দেখে বাংলাদেশের জয়ের আশা করাটা ছিল দুঃসাহসিক ব্যাপার। জোড়া সেঞ্চুরি করে এই অসম্ভবকে সম্ভব করেছেন সাকিব আল হাসান ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

এই জয়ের পর বাংলাদেশের প্রশংসা করতে কার্পণ্য করেননি সাবেক ব্ল্যাক ক্যাপ ফাস্ট বোলার শেন বন্ড। ‘৩৩ রানে চার উইকেট হারানোর পর বাংলাদেশ যেভাবে ঘুরে দাঁড়িয়েছে তা সত্যিই অবিশ্বাস্য। চরম ধৈর্য্যর পরীক্ষা দিয়েছে তারা। গেল চার-পাঁচ বছর ধরে বাংলাদেশকে ঘরের মাটিতে হারানো রীতিমতো অসম্ভব হয়ে দাঁড়িয়েছে। বাংলাদেশের কৃতিত্বের কথা নতুনভাবে বলার কিছু নেই। শুধু দেশেই না, দেশের বাইরেও তারা যথেষ্ঠ উন্নতি করেছে। এটা কোচ চান্দিকা হাতুরুসিংহের ধারাবাহিক উন্নতির ফল’, সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমস-কে বলেন সাবেক এই কিউই পেসার।

চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে বাংলাদেশ স্কোয়াড সাজানো হয়েছে অভিজ্ঞতা ও তারুণ্যের মিশেলে। দলের তরুণ ক্রিকেটারদের প্রশংসা করে ৪২ বছর বয়সী বন্ড বলেন, ‘বাংলাদেশ শিবিরে বেশ কিছু তরুণ প্রতিভাবান ক্রিকেটার আছেন। বাংলাদেশকে সেমিফাইনালে পা রাখতে সাহায্য করেছেন এই তরুণ ক্রিকেটাররাই। যেকোনো কন্ডিশনেই কঠিন প্রতিপক্ষ হিসেবে নিজেদের প্রমাণের চেষ্টায় রয়েছে বাংলাদেশ। বিশ্ব ক্রিকেটের জন্য যা দারুণ এক সংবাদ।’

২০১০ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে বিদায় নেওয়ার আগে নিউজিল্যান্ডের হয়ে ১৮টি টেস্ট, ৮২টি ওয়ানডের পাশাপাশি ২০টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন ৪২ বছর বয়সী বন্ড। ক্রিকেট থেকে অবসর নেওয়ার পর নিউজিল্যান্ড জাতীয় দল ও ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) দল মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বোলিং কোচের দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি।

সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস

Advertisements