ফেসবুকে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের লক্ষ-কোটি ভক্তদের স্ট্যাটাসে শুধু একটি আফসোস যদি ‘তখন’ তিনি আউট হতেন তাহলে হয়তো ত্রি-দেশীয় ক্রিকেট সিরিজে টাইগারদের দ্বিতীয় ম্যাচের ফলাফলও হতে পারতো অন্যরকম।

বুধবার নিউজিল্যান্ডের ইনিংসের ৪৬তম ওভারে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তূজার বলে তরুণ মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতের হাতে ধরা পরে যখন ড্রেসিং রুমে ফিরে যাচ্ছিলেন জিমি নিশাম।

নিউজিল্যান্ডের ইনিংসের ৩৪তম ওভারে। ইতিমধ্যে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল তুলে নিয়েছিল তাদের চার-চারটি উইকেট।

যখন কিউইদের ধীরে ধীরে ম্যাচে চেপে ধরছিল রুবেল-মোস্তাফিজরা। তখনই ঘটে যায় বিপত্তিটি। বাঁহাতি নিশামকে এক দুর্দান্ত ডেলিভারিতে এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলেন অফ-স্পিনার মেহেদী হাসান মিরাজ।

সাথে সাথে আম্পায়ারের উদ্দেশে এলবিডব্লিউর জোরালো আবেদন করে গোটা টিম বাংলাদেশ। আম্পায়ারের আউট দেওয়া যখন মনে হচ্ছিল সময়ের ব্যাপার ঠিক তখনই সবাইকে চমকে নিজের অসম্মতির কথা জানান আম্পায়ার! এমন একটি জীবন পেয়ে ম্যাচে কাজে লাগাতে মোটেও ভুল করেননি নিউজিল্যান্ডের জিমি নিশাম।

নিজের দলের জয়ে অনেকটা নিশ্চিত করেই, তবেই আউট হন। নিউজিল্যান্ডের তখন প্রয়োজন ২৪ বলে আর মাত্র ১৭ রান। অনেকটা প্রত্যাশিত ভাবেই নিজের ৪৮ বলের ৫২ রানের ইনিংসের জন্য নির্বাচিত হন ম্যাচ সেরা ক্রিকেটার। অথচ আগে তিনি ফিরে গেলে কঠিন এক পরিস্থিতেই পড়ে যেত তার দল।

Advertisements