ত্রিদেশীয় সিরিজের ম্যালাহাইডের প্রথম ম্যাচে মাঠ আর উইকেটের মধ্যে পার্থক্য খুঁজে পেতেই বেগ পেতে হয়েছে বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের। পুরোটাই যেন সবুজ গালিচা। আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে সে ম্যাচে শুরুতেই ব্যাটিং বিপর্যয়ের কারণ হিসেবে এই উইকেটকেই মনে করা হচ্ছে। যদিও তামিম ইকবাল ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দারুণ ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ ঘুরে দাঁড়িয়েছিল ভালোভাবেই। শেষ পর্যন্ত বৃষ্টিতে পণ্ড হয়ে যায় ম্যাচটি। তবে দ্বিতীয় ম্যাচে উইকেট কোনো সমস্যা হবে না বলে মনে করছেন অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়বেন বলেই আশা করছেন তিনি।

বুধবার সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ। ক্লনটার্ফ ক্রিকেট ক্লাব মাঠের উইকেটও একই রকম থাকবে বলে ধারণা করছেন মাশরাফি। তবে চিন্তিত নন অধিনায়ক। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ঘুরে দাঁড়াতে প্রস্তুত তার দল এমনটাই জানালেন।

মঙ্গলবার অনুশীলন শেষে সাংবাদিকদের বাংলাদেশ দলপতি বলেন, ‘দ্রুত উইকেট পরে যাওয়ার পরে তামিম (ইকবাল) ও রিয়াদ (মাহমুদউল্লাহ) যেভাবে সামলেছে সেখানে তাদের অভিজ্ঞতাই কাজ করেছে। এটাই স্বাভাবিক, এখানে দুই বা তিন উইকেট দ্রুত পড়তে পারে কিন্তু ঘুরে দাঁড়ানোটাই গুরুত্বপূর্ণ। আমরা একই ধরনের উইকেটই আশা করছি। যদি উইকেট ধরে খেলতে পারি তবে এমন উইকেটে ২৭০-৩০০ রান করা সম্ভব। আমরা এর আগে এমন উইকেটে খেলিনি।’

ইংল্যান্ডের কন্ডিশনে যেন সহজেই খাপ খাওয়াতে পারা যায় সে উদ্দেশ্যেই এই ত্রিদেশীয় সিরিজ। কিন্তু আয়ারল্যান্ড ও ইংল্যান্ডের মধ্যে খুব একটা মিল পাচ্ছেন না মাশরাফিরা। আবহাওয়াও ভিন্ন বলে মানিয়ে নিতে কষ্ট হচ্ছে ক্রিকেটারদের। মাশরাফি বলন, ‘এখানে কয়েকদিন থেকেই অনুশীলন করছি আমরা। আবহাওয়া কিছুই বোঝা যায় না। কখনো অনেক বাতাস আবার হঠাৎ ঝড়ো বৃষ্টি! আবার রোদ। এসব মানিয়ে নিয়েই খেলতে হবে। আশা করি, ইংল্যান্ডে এমন থাকবে না। তবে এখনও এখানে আরও ম্যাচ আছে তাই মানিয়ে নিতেই হবে।’

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) খেলার কারণে অভিজ্ঞ কয়েকজন ক্রিকেটারকে দলে পাচ্ছে না নিউজিল্যান্ড। তবুও নিউজিল্যান্ডকে শক্তিশালী দল মানছেন মাশরাফি। তিনি বলেন, ‘আমাদের প্রথম লক্ষ্যই থাকবে জয়। নিউজিল্যান্ড অবশ্যই একটি ভালো দল। র‍্যাংকিংয়েও তারা ভালো অবস্থানে আছে। এমনকি তাদের অভিজ্ঞ কয়েকজন ক্রিকেটার না থাকার পরেও তাদের দলটি বেশ শক্তিশালী। তাদের বিপক্ষে কিছুদিন আগেই আমরা খেলেছি। আমরা বিশ্বাস করি, আমরা নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে জিততে পারব। অবশ্যই কন্ডিশন অনেক বড় ব্যাপার কিন্তু আমাদের জেতার যোগ্যতা আছে।’

Advertisements