ক্রিকেট বিশ্বকে সাব্বির রহমান বহুবারই দেখিয়েছেন প্রয়োজনে তার ব্যাট কতটা ক্ষুরধার হতে পারে। অভিষিক্ত ওয়ানডে ম্যাচ ২০১৪ সালের জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ২৫ বলে ৪৪ রানের দুর্দান্ত ইনিংসের পর তার অনন্য ব্যাটিং দেখা গেছে গত ২০১৫ বিশ্বকাপে স্কটল্যান্ড, শ্রীলঙ্কা ও জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে।

ঘরোয়া ও আন্তর্জাতিক অঙ্গনে এমন আরও কত ম্যাচ তিনি খেলেছেন, তার উল্লেখ নাই করলাম।
তবে এখানে যেটা উল্লেখ না করলেই নয় সেটা হলো, আসছে জুনে ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠেয় আইসিসি চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে আরেকবার গোটা ক্রিকেট বিশ্বকে সাব্বির তার ব্যাটিং নৈপুণ্য দেখিয়ে দিতে চান।
রোববার (২৩ এপ্রিল) মিরপুর ক্রিকেট একাডেমিতে তিনি গণমাধ্যমকে এমন প্রত্যয় ব্যক্ত
করেন, ‘আমি যেন আরেকবার গোটা বিশ্বকে ভালো ক্রিকেট দেখাতে পারি। ’
জুনে অনুষ্ঠেয় আইসিসি চ্যাম্পিয়নস ট্রফিকে সামনে রেখে সাব্বিরদের প্রস্তুতি ভালোই হচ্ছে। একদিকে যেমন ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ দিয়ে ম্যাচের মধ্যে আছেন, তেমনি ব্যক্তিগত অনুশীলনও চলছে। আর দুইয়ের সমন্বয়ে টুর্নামেন্টে টাইগাররা বেশ আত্মবিশ্বাসী হয়ে মাঠে নামতে পারবেন বলে বিশ্বাস করেন এই টাইগার বিস্ফোরক ব্যাটসম্যান।
সাব্বির জানান, ‘আমরা প্রিমিয়ার লিগের পাশাপাশি ব্যক্তিগত অনুশীলনেও সময় দিচ্ছি। মেশিনে, স্লাপে অনুশীলন করছি যেন ঠিকমতো পারফর্ম করতে পারি। আর আমরা প্রিমিয়ার লিগে খেলছি মূলত আত্মবিশ্বাস বাড়ানোর লক্ষ্যে। ’
এদিকে চ্যাম্পিয়নস ট্রফিকে সামনে রেখে নির্বাচকরা যে দল ঘোষণা করেছেন তাতে টুর্নামেন্টে ভালো কিছু করতে আশাবাদী সাব্বির, ‘ওখানে আমাদের মূল লক্ষ্য হচ্ছে ভালো ক্রিকেট খেলা। আমরা যেন টিম অনুযায়ী পারফর্ম করতে পারি সেই চেষ্টাই করবো। আমরা যেভাবে খেলছি তাতে আত্মবিশ্বাস আছে যে কোনো দলের সাথেই ভালো করবো। ’
এদিকে ১ জুন চ্যাম্পিয়নস ট্রফির উদ্বোধনী ম্যাচে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ স্বাগতিক ইংল্যান্ড। তাই সাব্বিরের কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিল হোম টিমের সাথে জয় পাওয়া কতটুকু সহজ হবে?
উত্তরে তিনি বললেন, ‘আমরা দল অনুযায়ী খেলবো। যদিও ওরা হোম কন্ডিশনে এগিয়ে থাকবে। প্রতিপক্ষ কে সেটা দেখার বিষয় না। আমরা যদি শতভাগ দিতে পারি যে কোন দলকে হারানো সম্ভব। ’

Advertisements