ডাবলিনে ত্রিদেশীয় সিরিজের আয়ারল্যান্ড-বাংলাদেশ মধ্যকার প্রথম ম্যাচে বৃষ্টির কারণে পরিত্যক্ত ঘোষণা করেছে ম্যাচ রেফারি। এর আগে টসে জিতে বাংলাদেশকে ব্যাটিংয়ে পাঠায় আয়ারল্যান্ডের অধিনায়ক উইলিয়াম পোর্টারফিল্ড। শুরুটা মোটেও দারুন হয়নি বাংলাদেশের। দলীয় ৮ রানের মাথায় ওপেনার সৌম্যকে হারায় বাংলাদেশ।

আইরিশ পেসার চেজের দেওয়া বাউন্স বলে হুক করতে কিপারের হাতে ক্যাচ তুলে দেন সৌম্য। ক্রিজে ঠিকে থাকতে পারেননি সাব্বির রহমান। কোন রান না করেই ডাউন দ্যা উইকেটে এসে মারতে গিয়ে চেজের বলে আউট হয়ে সাজঘরে ফিরে যান তিনি। দলের হয়ে হাল ধরার চেষ্টা করেন তামিম ও মুশফিক।

আইরিশ বোলারদের উপর চওড়া হওয়ার আগেই সাজঘরে ফিরে যান মুশফিক। তামিমকে সঙ্গে নিয়ে ৩৮ রানের জুটি গড়েন মুশফিক। ব্যক্তিগত ১৭ বলে ১৩ রান নিয়ে ম্যাকার্তির বলে আউট হন তিনি। একপ্রান্ত থেকে দলের রানের চাকা সচল রাখেন ওপেনার তামিম ইকবাল। ক্রিজে এসেই আইরিশ বোলারদের উপর চওড়া হন অধিনায়ক সাকিব আল হাসান।

তবে ক্রিজে বেশীক্ষণ টিকতে পারেননি তিনি। চেজের দেওয়া স্ট্যাম্প থেকে একটু দূরের বলে মারতে গিয়ে কিপারের কাছে ক্যাচ তুলে দেন সাকিব। সাজঘরে ফিরে যাওয়ার আগে ব্যক্তিগত রানের খাতায় ১৪ রান যোগ করেন তিনি। দল যখন ব্যাটিং বিপর্যয়ে তখনই দলের ত্রাণকর্তা হয়ে ফিরেন তামিম-রিয়াদ।

দুজনেই মিলে দলের রানের চাকা সচল রাখেন। তামিম তুলে নেন ক্যারিয়ারের ৩৪তম অর্ধশতক। অন্যদিকে তামিমের পাশাপাশি দলের বিপদে ব্যাট হাসে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদেরও। তামিম-রিয়াদ মিলে ৮৭ রানের জুটি গড়লে আবারো ম্যাচে বৃষ্টি বাগড়া দেয়। দীর্ঘ সময়ের পর বৃষ্টির কারণে ম্যাচ শুরু না হলে সিরিজের প্রথম ম্যাচ পরিত্যক্ত ঘোষণা করে ম্যাচ রেফারি। দলের হয়ে ৮৮ বলে ৬৪ রান করে অপরাজিত থাকেন তামিম এবং ৫৬ বলে ৪৩ রান করে অপরাজিত থাকেন রিয়াদ।

আয়ারল্যান্ডের হয়ে ৩টি উইকেট লাভ করেন চেজ এবং একটি উইকেট পান ম্যাকার্তী। আগামী ১৪ মে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচ খেলতে নামবে আয়ারল্যান্ড এবং ১৬ মে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশের।

Advertisements