গেল ২০১৫ ওয়ানডে বিশ্বকাপে নিউজিল্যান্ড ও ভারতের বিপক্ষে টানা দুই ম্যাচে স্লো ওভার রেটের দায়ে অভিযুক্ত হন অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। ওই বছর ১৭ এপ্রিল ঘরের মাঠে পাকিস্তানের বিপক্ষে এক ম্যাচ নিষিদ্ধ হন তিনি। শুক্রবার ত্রিদেশীয় সিরিজের প্রথম ম্যাচে একই কারণে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষেও ড্রেসিংরুমে থাকছেন সফলতম এই অধিনায়ক।

সবমিলিয়ে দুই বছরেরও বেশি সময় পর ওয়ানডে ক্রিকেটে মাশরাফিকে ছাড়া মাঠে নামছে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল। কাকতালীয়ভাবে সর্বশেষ ম্যাচেও মাশরাফির অবর্তমানে পাকিস্তানের বিপক্ষে অধিনায়কের দায়িত্ব পান সাকিব আল হাসান। ডাবলিনেও শুক্রবার টস করতে নামছেন তিনি।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে পরপর দুটি ওয়ানডে ম্যাচে স্লো ওভার রেটের দায়ে ত্রিদেশীয় সিরিজের প্রথম ম্যাচে নিষিদ্ধ হয়েছেন  মাশরাফি। তাই মূল দায়িত্বটা নিতেই হচ্ছে টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশ দলের এই নতুন অধিনায়ককে। মাশরাফির অবর্তমানে পাকিস্তানের বিপক্ষে সেই ম্যাচেও সাকিবের নেতৃত্বে ৭৯ রানের বিশাল জয় পায় বাংলাদেশ দল।

২০১৪ সালে যখন পরাজয়ের গ্লানিতে দিশেহারা বাংলাদেশ দল, তখনই নেতৃত্বের হাল ধরেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। তার অধিনায়কত্বে ভর করে প্রতিনিয়ত ভালো অবস্থানের দিকে এগোতে থাকে লাল-সবুজ জার্সিধারীরা। প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে জায়গা করে নেওয়া, পাকিস্তান-ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ জয়ের পাশাপাশি ওয়ানডে ফরম্যাটে শক্ত অবস্থান করে নেওয়া; সবকিছুই মাশরাফির হাত ধরে। 

Advertisements