অবশেষে অপেক্ষার সমাপ্তি ঘটলো। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার প্রধান নির্বাহী জেমস সাদারল্যান্ড বুধবার এক বিজ্ঞপ্তিতে অস্ট্রেলিয়া দলের বাংলাদেশ সফরটি আনুষ্ঠানিকভাবে নিশ্চিত করেন।

২০১৭-১৮ অ্যাশেজের আগে বাংলাদেশে দুই টেস্টের সিরিজ খেলার কথা ছিল অস্ট্রেলিয়ার। তবে নিরাপত্তা ইস্যুতে কিছু কিন্তু থাকায় ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার পক্ষ থেকে সবুজ সংকেতের অপেক্ষা করতে হয়েছিল বিসিবির।
২০০৬ সালের রিকি পন্টিংয়ের অস্ট্রেলিয়া দলের বাংলাদেশ সফরের পর চলতি বছরের আগস্টের শেষের দিকে ঢাকা ও চট্রগ্রামে দুইটি টেস্ট খেলবে বাংলাদেশ ও অস্ট্রেলিয়া।

‘আমরা কিছু বিষয়ে এখনো আলোচনা করছি। আমরা এখন যেই অবস্থানে আছি সেটাতে আমরা খুবই খুশি। তবে এখনো নিরাপত্তা নিয়ে কিছু ব্যাপারে কিছু ঘাটাঘাটি করা বাকি আছে। তবে আমরা এখন পর্যন্ত যা দেখে আসছি, সেক্ষেত্রে আত্মবিশ্বাসের সাথে বলতে পারি যে, সফরটি সময়মত অনুষ্ঠিত হবে। ’

এদিকে সফরের খসড়া সূচি প্রায় চূড়ান্ত হলেও এখন পর্যন্ত দুই বোর্ডের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে দিন তারিখ ঠিক হয়নি। তবে সফরের একটি টেস্ট ঈদ উল আজহার আগে এবং শেষ টেস্ট ঈদের পরে অনুষ্ঠিত হবে বলে ধারনা করা হচ্ছে। ’

বাংলাদেশে শেষবারের মত অস্ট্রেলিয়া সফর হয়েছিল ২০১১ বিশ্বকাপের ঠিক পরেই। রিকি পন্টিংয়ের নেতৃত্বে অস্ট্রেলিয়া দল তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলেছিল।

Advertisements