শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের শেষ ম্যাচে মন্থর ওভার রেটের কারণে এক ম্যাচ নিষিদ্ধ হয়েছিলেন টাইগার অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজে এগিয়ে থেকে শেষ ম্যাচে পরাজয়ের স্বাদ পাওয়ার সাথে সাথে কাপ্তানের নিষেধাজ্ঞা সইতে হয় বাংলাদেশকে।

যার কারনে ১২ তারিখ আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে তিন জাতি ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচে খেলতে পারবে না মাশরাফি। মাশরাফির নিয়মিত ডেপুটি অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান দলকে নেতৃত্ব দিবেন।

এদিকে সিরিজের আগে কন্ডিশনিং ক্যাম্পের উদ্দেশ্য সবাই যখন ইংল্যান্ডে থাকলেও মাশরাফি ছিলেন বাংলাদেশে। নিজের স্ত্রীর অসুস্থতা খবর শুনে দেখভালের জন্য ক্রিকেট ছেড়ে উড়ে এসেছিলেন দেশে।

কিন্তু কন্ডিশনিং ক্যাম্প ও দুটি প্রস্তুতি ম্যাচে খেলার সুযোগ ইতিমধ্যে হাতছাড়া হয়েছে মাশরাফির। যদিও দেরিতে গেলেও কন্ডিশনের সাথে মানিয়ে নেয়ার ব্যাপারে আশাবাদী টাইগার কাপ্তান।

আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচে খেলতে না পারলেও একদিক থেকে খুশী মাশরাফি। দেশে থাকায় বাকিদের মত প্রস্তুতিটা হয়ে ওঠে নি মাশরাফির। নিষিদ্ধ থাকায় একটা দিন নিজের বোলিং নিয়ে কাজ করতে পারবেন বলে জানান তিনি।

‘(হাসি) কি আর করার আয়ারল্যান্ডের চা টা খাবো বসে। খেলা দেখব এছাড়া আর কি করার। হয়তো বা বোলিং অনুশীলন করব। একদিক থেকে ভালো হয়েছে ওই সময় আমি বোলিং অনুশীলন করে প্রস্তুত হতে পারব।’

Advertisements