বাংলাদেশের ক্রিকেট সংস্লিষ্ট বিভিন্ন মহলের ধারণা, কোচ ও টিম ম্যানেজমেন্টের সাথে ‘ঝামেলা’র কারণেই আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিকে বিদায় জানিয়েছেন মাশরাফি বিন মর্তুজা। কিন্তু মাশরাফির নিজের দাবি হলো, তরুণদের সুযোগ করে দিতেই তিনি টি-টোয়েন্টি থেকে অবসর নিয়েছেন। এবং তার সতীর্থ পেস বোলার রুবেল হোসেনও মাশরাফির বক্তব্যকেই সমর্থন করছেন। একইসাথে রুবেল এটিকে ‘অনেক ভেবেচিন্তে নেয়া সিদ্ধান্ত’ বলেও দাবি করেন।

 অনেক ভেবেচিন্তেই অবসরের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মাশরাফি

‘আসলে মাশরাফি ভাইতো সবকিছু জেনেশুনে চিন্তা-ভাবনা করেই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। আর সে নিজেও বলেছে, টি-টোয়েন্টি খেলাটা সে ইনজয় করে না। এটা তিনি বার বার বলেছেন। টি-টোয়েন্টিটা উনি যেহেতু এনজয় করেনা, সে জন্য অবসর নিয়ে জুনিয়রদের সুযোগ করে দিয়েছেন। তিনি যে চিন্তা ভাবনা করেছে, সেটা তার পরিবারের সাথে আলাপ আলোচনা করে জেনেশুনেই এই ধরনের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। সেজন্য আমার মনে হয়না এই ব্যাপারে আমাদের বাইরে থেকে কিছু বলার আছে,’ খেলাধুলা ডট কমে দেয়া এক একান্ত সাক্ষাৎকারে এ কথা বলেন রুবেল।

 

রুবেল আরও জানান ক্রিকেটার মাশরাফির প্রতি তার ভালোবাসা এবং মাশরাফির বিদায়ে নিজের খারাপ লাগা ও কষ্টের কথা। ‘মাশরাফি ভাই আমার খুব পছন্দের ক্রিকেটার। ছোট বেলা থেকেই আমি তাকে আইডল মেনে আসছি। তো একটু খারাপ লাগতেছে যে তার সাথে আমার টি-টোয়েন্টি খেলাটা আর কখনো হবে না। এটাই আর কি, এটার জন্য খুব খারাপ লাগছে। সে তরুণদের সুযোগ করে দেয়ার জন্যই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।‘

 

ড্রেসিংরুমে মাশরাফির উপস্থিতিকে মিস করবেন কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে রুবেল বলেন, শুধু তিনি একাই নন বরং গোটা দলই মাশরাফিকে মিস করবে। ‘অবশ্যই তাকে অনেক মিস করব। দল তাকে অনেক মিস করবেও। কারণ সে দলের সাথে যেভাবে থাকে। যেভাবে প্লেয়ারদের সাথে কথা বলে, ডেসিংরুমে যেভাবে খেলোয়াড়দের সাথে মজা করে। মাঠে নামার আগে খেলোয়াড়দের সাথে যেভাবে কথা বলে, তিনি আমার সাথে খুব ফ্রেন্ডলি কথা বলেন। একমদ বন্ধুর মতো আমার সাথে আলাপ করে। এসব জিনিস আমার মনে হয় তার না থাকায় দল অনেক মিস করবে।‘

Advertisements