জাতীয় দলে একরকম ‘বাতিল’ এর খাতায় তারা। কিন্তু ঘরোয়া ক্রিকেটে তাদের পারফরম্যান্স তরুণদের অনুকরণীয় তা আবারও প্রমাণ করলেন আব্দুর রাজ্জাক। সঙ্গে ঘূর্ণি বোলিংয়ে সোহাগ গাজীও দেখালেন চমক।

বৃহস্পতিবার ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামে ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগের ম্যাচে ভিক্টোরিয়া স্পোর্টিং ক্লাবের বিপক্ষে একাই চার উইকেট তুলে নিয়েছেন আব্দুর রাজ্জাক। শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব লিমিটেডের এই অধিনায়কের সঙ্গে জুটি বেঁধে আরেক স্পিনার সোহাগ গাজী নিয়েছেন তিন উইকেট।

টসে জিতে আগে ব্যাট করতে নামা ভিক্টোরিয়ার বিপক্ষে সাইফুল হায়দার হৃদয়কে বোল্ড করে উইকেট নেওয়ার উৎসব শুরু করেন রাজ্জাক। একে একে তুলে নেন উত্তম সরকার, মোহাইমিনুল খান ও মাহাবুবুল আলমের উইকেট। এদিন সবচেয়ে বড় ব্রেক থ্রুটা দিয়েছিলেন ভিক্টোরিয়ার ২০৯ রান তোলার পথে ৮৮ রানের ইনিংস খেলা উত্তম সরকারকে ফিরিয়ে।

সোহাগ গাজী তিন উইকেট নেওয়ার পথে ফিরিয়েছেন আবু সায়েম অমি, মনির হোসেন এবং মইনুল ইসলামকে।

সর্বশেষ  ডিপিএলের আসরেও ঝলমলে ছিলেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের হয়ে ১৫৩ ম্যাচে ২০৭ উইকেট নেওয়া রাজ্জাক। সেবার কলাবাগান ক্রীড়া চক্রের হয়ে ১১ ম্যাচে নিয়েছিলেন ১৮ উইকেট।

এই দুই স্পিনারই একটা সময়ে ছিলেন জাতীয় দলের ‘অটোমেটিক চয়েজ’। কালের অতলে দুজনেই এখন ভাবনার বাইরে। তারপরও টিকে থাকার লড়াইয়ে ঘরোয়া ক্রিকেটকেই আপন করে নিয়েছেন তারা। বিশেষ করে রাজ্জাক প্রতিনিয়ত নিজেকে ছাড়িয়ে যাচ্ছেন। সর্বশেষ ২০১৪ সালে জাতীয় দলের হয়ে মাঠে নেমেছিলেন তিনি। ২০১৫ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে শেষবার মাঠে নেমেছিলেন ডানহাতি স্পিনার সোহাগ গাজী। বাংলাদেশের হয়ে টেস্টে এক ম্যাচে হ্যাটট্রিক করার পাশাপাশি সেঞ্চুরি করার রেকর্ডটিও তার। 

Advertisements