শেষ হচ্ছে বাংলাদেশ টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের মাশরাফি বিন মুর্তজা অধ্যায়। বৃহস্পতিবার কলম্বোর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে শেষবারের মতো মাশরাফির নেতৃত্বে টি-টোয়েন্টিতে মাঠে নামবে বাংলাদেশ। ম্যাচ জয় বা পরাজয় ছাপিয়ে এখন মাশরাফির বিদায়ই মুখ্য হয়ে উঠেছে বাংলাদেশ ক্রিকেটে।

ম্যাচের ফলাফল নিয়ে ভাবছে না বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা। তারা মাঠে নামতে চায় শুধু মাশরাফির জন্য। তরুন অলরাউন্ডার মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত অকপটেই জানিয়ে দিলেন, তারা মাশয়াফির জন্যই খেলবেন।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দুই ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে চার এপ্রিল হঠাৎ করেই আসে মাশরাফির টি-টোয়েন্টি ছাড়ার ঘোষণা। টস করতে এসে মাশারাফি নিজেই জানান এই সিরিজ শেষে আর থাকছেন না টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে। এর আগে অবশ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নিজের আইডিতে জানিয়ে দেন এই সিদ্ধান্ত। এরপরেই  হতাশা ছেয়ে যায় বাংলাদেশ ক্রিকেট ভূবনে।

প্রিয় ক্রিকেটার, প্রিয় বড় ভাই, প্রিয় অভিভাবকের আজ শেষ টি-টোয়েন্টি। তাই তার প্রতি সম্মান জানিয়েই আজ মাঠে নামবে তার সতীর্থরা। ক্রিকেট থেকে একেবারে অবসরে যাচ্ছেন না মাশরাফি। নিয়মিত চালিয়ে যাবেন ওয়ানডে। কিন্তু ক্রিকেটের এই ক্ষুদ্র সংস্করণ থেকেও প্রিয় অধিনায়ককে হারাতে চান না কেউ। প্রথম ম্যাচ ছয় উইকেটে হেরেছে বাংলাদেশ। তাই শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে শেষ ম্যাচটি জিতে টি-টোয়েন্টি সিরিজ ড্র করে হলেও স্মরণীয় করে রাখতে চাইছে বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা। আর এই ম্যাচে জয় পেলে বীরের বেশেই মাঠ ছাড়তে পারবেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের সেরা অধিনায়ক মাশরাফি।

বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় লাল-সবুজ জার্সিতে যখন বাংলাদেশ দল কলম্বোর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে খেলতে নামবে, একদিকে যেমন বাংলাদেশ ক্রিকেটারদের মনে থাকবে এক সমুদ্র বিষাদ। অপরদিকে থাকবে প্রিয় অধিনায়ককে জয় দিয়ে সম্মানিত করার উদ্যম।

Advertisements