অবসর নিয়ে ছিলো নানা গুঞ্জন। সেটা আর বাড়তে দিলেন না মাশরাফি বিন মুর্তজা। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচের টস করতে গিয়ে মাশরাফি জানিয়ে দিলেন, শ্রীলঙ্কার বিপক্ষের সিরিজটিই তার ক্যারিয়ারের শেষ টি-টোয়েন্টি সিরিজ। মাশরাফির এমন হঠাৎ সিদ্ধান্ত হতবাক বাংলাদেশ ক্রিকেট অঙ্গন।

কেউই মেনে নিতে পারছেন না মাশরাফির এমন সিদ্ধান্ত। মাশরাফির এমন সিদ্ধান্তে বাকরুদ্ধ সতীর্থরাও। আবেগ সামলে বিদায়ী বার্তা দিতে ভুলেননি সতীর্থরা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নিজের ভেরিফাইড পেজে দেওয়া পোস্টে বাঁ-হাতি ওপেনার তামিম ইকবাল জানান, মাশরাফি তার কাছে একজন জীবন্ত কিংবদন্তি।

তামিমের পোস্টের স্ক্রিনশট।

ফেসবুকে দেওয়া ওই পোস্টে তামিম যা লিখেছেন ঠিক সেটাই তুলে ধরা হলো-

আপনি যত বেশীই বলুন না কেনো, সেটা কম হয়ে যাবে; বিষয়ের মানুষটা যখন আমার ক্যাপ্টেন মাশরাফি ভাই!

তার ঝুলিতে হয়তো কোনো বিশ্বরেকর্ড নেই। তিনি হয়তো অন্য কোনো কোনো দেশের কিংবদন্তীর মতো ৪০০ বা ৫০০ উইকেট নেননি। কিন্তু একটা ব্যাপারে তিনি অনন্য, এই দেশটার ক্রিকেট ইতিহাসে নিজের চলার পথে অন্তত একটা দাগ রেখে যেতে পারছেন।

আজ যে বদলে যাওয়া বাংলাদেশ দল, যে উজ্জীবিত বাংলাদেশের ক্রিকেটকে দেখেন আপনারা, এ সবই এসেছে তার নেতৃত্বে ভর করে। আমার কাছে আমার ক্যাপ্টেনের এই কীর্তি চার-পাচ শ উইকেট বা বিশ্ব রেকর্ডের চেয়েও বড় ব্যাপার। তিনি একটা দৃষ্টান্ত তৈরী করেছেন যে কিভাবে একটা ড্রেসিংরুমকে একটা পরিবারের মতো করে চালাতে হয় এবং একই সাথে রেজাল্ট আনতে হয়।

আমি যদি একজন মানুষ হিসেবে দেখি, মাশরাফি বিন মুর্তজা আমার কাছে একজন জীবন্ত কিংবদন্তী।

আশা করি, আগামীকাল যখন আমরা শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দ্বিতীয় ও সিরিজের শেষ টি-টোয়েন্টি খেলতে নামবো, আপনি মাথা উচু করে আপনার টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ার শেষ করতে পারবেন।

আসছে দিনগুলোর জন্য আপনাকে অনেক অনেক শুভেচ্ছা। আপনাকে খুব মিস করবো, ক্যাপ্টেন।

২০০৬ সালে বাংলাদেশের অভিষেক টি-টোয়েন্টিতে ম্যাচ সেরা হয়েছিলেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। সেই থেকে এখন পর্যন্ত বাংলাদেশের খেলা ৬৬ টি-টোয়েন্টি ম্যাচের ৫৩টিতেই খেলেছেন তিনি। কিন্তু আর নয়। ক্যারিয়ারের ৫৪তম ম্যাচ দিয়েই টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটকে বিদায় জানাচ্ছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট ইতিহাসের সেরা এই অধিনায়ক।

Advertisements