দারুণ আত্মবিশ্বাসই শততম টেস্টে বাংলাদেশের জয়ের পাথেয় হিসেবে কাজ করেছে। শ্রীলঙ্কা সফরে মাঠে নামা না হলেও, টেস্ট স্কোয়াডে থাকা পেসার কামরুল ইসলাম রাব্বি জানালেন এমনটাই।

এদিকে, টেস্ট ও ওয়ানডে সিরিজ ড্র হলেও, লঙ্কানদের বিপক্ষে টাইগারদের টি-টোয়েন্টি সিরিজ জয়ের বড় সম্ভাবনা দেখেন তিনি। আসন্ন ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে এই পেসার খেলবেন মোহামেডানের হয়ে। এই আসরে ভালো খেলে জাতীয় দলে জায়গাটা পাকা করতে চান রাব্বি।

অদ্ভুত এক ভালো লাগা ছুঁয়ে যায় কথাগুলো শুনলে। নিজেদের শততম টেস্টে ক্রিকেটীয় সুখের কলতান ছড়িয়ে দিতে শ্রীলঙ্কার মাটিতে নেমেছিলো টাইগাররা। আর সেটা তারা পেরেছে স্বতঃস্ফূর্তভাবেই। বলা হয়, দারুণ কিছু অর্জনের আগে এক ধরনের ইতিবাচক তাগিদ অনুভূত হয়। টেস্ট ক্রিকেটে বাংলাদেশের ঐতিহাসিক ম্যাচটিতে শুধু মাঠেই নয়, প্রাণের সঞ্চার হয়েছিলো ডাগ আউট থেকে টিম হোটেলসহ-সবখানে। একাদশে না থাকলেও, স্কোয়াডে থেকে মুশফিকদের সঙ্গে ড্রেসিংরুম ভাগাভাগি করা কামরুল ইসলাম রাব্বি শোনালেন সে গল্পটাই।

লঙ্কানদের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডের আধিপত্য ছড়ানো জয়ের পর শেষ ম্যাচে খেই হারিয়ে ফেলা এক বাংলাদেশ দলকে দেখা গেছে। কিন্তু, টি-টোয়েন্টি সিরিজেও ডাগ আউটের ঐ মানসিক শক্তিটা প্রবাহিত হবে। এমন বিশ্বাস রাব্বির।

তবে, অব্যক্ত একটা আক্ষেপ হয়তো আছে। শততম টেস্টের একাদশে তো তিনিও থাকতে পারতেন। অথচ নিউজিল্যান্ড সফরে ভালোই প্রশংসা কুড়িয়েছিলেন তিনি। ২ ম্যাচে তার ৬ উইকেট ছাপিয়ে নজর কেড়েছিলো সিমিং কন্ডিশনে স্যুইং আর বাউন্সার করার পারদর্শিতা। কিন্তু, ভারতের বিপক্ষে হায়দ্রাবাদ টেস্টে নিষ্প্রভ পারফরম্যান্সের পর শ্রীলঙ্কায় আর সুযোগ হয়নি তার। যদিও রাব্বি কথা বললেন ক্রিকেটীয় যুক্তিতেই।

এবারের ডিপিএলে মোহামেডানের জার্সি গায়ে চাপাবেন বরিশালের এই পেসার। আগেরবারের ফর্মটা এবারো ধরে রাখতে প্রত্যয়ী তিনি।

Advertisements