পাকিস্তানে সফরে যাচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) হাই পারফরম্যান্স দল। আজ কলম্বোতে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) সভাপতি শাহরিয়ার খান এ কথা বলেছেন। বিসিবি–প্রধান নাজমুল হাসান ও শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটের প্রধান থিলাঙ্গা সুমাথিপালার সঙ্গে এক বৈঠক শেষে তিনি এ কথা বলেন। শাহরিয়ার জানিয়েছেন, আগামী জুলাই-আগস্টে পাকিস্তান ক্রিকেট দল বাংলাদেশ সফর করবে।

বাংলাদেশকে দুটি টি-টোয়েন্টি খেলার জন্য পাকিস্তান যে প্রস্তাব দিয়েছিল, তাতে বিসিবি রাজি হয়নি। এ ব্যাপারে শাহরিয়ার খান বলেন, ‘বাংলাদেশ পাকিস্তানে তাদের হাই পারফরম্যান্স দল পাঠানোর ব্যাপারে রাজি হয়েছে। তারা এখনো জাতীয় দল পাঠাতে প্রস্তুত নয়। তবে দুই দেশ একমত হলে আমরা হয় বাংলাদেশে নয়তো তৃতীয় কোনো দেশে খেলব। আমরা নিরপেক্ষ ভেন্যু হিসেবে শ্রীলঙ্কাকেও বেছে নিতে পারি। তবে এটা বলতে পারি, সফর একটা হচ্ছেই।’
বৈঠকটিকে ‘অনানুষ্ঠানিক’ বলেছেন পিসিবি–প্রধান, ‘আজ আমরা অনানুষ্ঠানিক বৈঠকে বসেছিলাম। ভারত আসতে পারেনি। বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা ও পাকিস্তান বসেছিলাম। আমরা ভবিষ্যতের পরিকল্পনা নিয়ে আলাপ করেছি। আলোচনা হয়েছে ভবিষ্যতের এশিয়া কাপ নিয়েও। আইসিসির নতুন প্রস্তাবিত সংবিধান নিয়েও কথা হয়েছে।’
জুলাইয়ে পাকিস্তান দলের বাংলাদেশ সফরের সঙ্গে কিছু আর্থিক বিষয় জড়িয়ে আছে। এর আগেও বাংলাদেশ একবার পাকিস্তানকে তিন লাখ ডলার দিয়েছিল বাংলাদেশে সফর করতে। পাকিস্তানের যুক্তি ছিল, হোম সিরিজ খেললে পিসিবির যা লাভ হতো, সেই সিরিজ বাংলাদেশে এসে খেলে গেলে এর লভ্যাংশ তো পিসিবির পাওনা।
শাহরিয়ারের কথায় আছে সেই ইঙ্গিত, ‌‘আমাদের আর্থিক বিষয়গুলোতে একমত হতে হবে। আপনারা জানেন, পাকিস্তান কিন্তু তৃতীয়বারের মতো বাংলাদেশের মাটিতে বাংলাদেশের সঙ্গে খেলবে।’
হাই পারফরম্যান্স দলের পাকিস্তান সফর ভবিষ্যতে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সফর ত্বরান্বিত করবে বলে আশাবাদী শাহরিয়ার, ‘আমি নিশ্চিত বাংলাদেশের হাই পারফরম্যান্স দল পাকিস্তান সফরে যাওয়ার পর বাংলাদেশ জাতীয় দল পাকিস্তান সফর করবে।’
বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান অবশ্য নির্দিষ্ট করে হাই পারফরম্যান্স দলের কথা বলেননি, ‘একটি বয়সভিত্তিক দল পাকিস্তানে পাঠানো হবে।’

Advertisements