দ্বিতীয় ওয়ানডে বৃষ্টির পেটে চলে যাওয়ায় তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডে ম্যাচটি ফাইনালে পরিণত হয়েছে। বাংলাদেশের সামনে সিরিজ জয়ের সুযোগ। অন্যদিকে স্বাগতিক শ্রীলঙ্কার মিশন সিরিজ বাঁচানোর। সিংহলিস স্পোর্টস ক্লাব গ্রাউন্ডে অনুষ্ঠেয় এই ম্যাচ খেলতে কলম্বোতে পৌঁছে গেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল।

ডাম্বুলা থেকে কলম্বোর দূরত্ব একেবারে কম নয়। বাসে প্রায় সাড়ে তিন ঘন্টার মতো সময় লাগে। বাংলাদেশ দল প্লেনে না চড়ে বাসেই গিয়েছে কলম্বোতে। ডাম্বুলা থেকে শ্রীলঙ্কার স্থানীয় সময় সকাল ১০টা ৪০ মিনিটে রওয়ানা দেয় বাংলাদেশ দল। সাড়ে তিন ঘন্টার যাত্রা শেষে দুপুর সোয়া দুইটার দিকে কলম্বোতে গিয়ে পৌঁছায় মাশরাফিবাহিনী।

তিন ম্যাচ সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডেতে আগামী এক এপ্রিল বাংলাদেশ সময় সকাল ১০টায় কলম্বোর সিংহলিস স্পোর্টস ক্লাব গ্রাউন্ডে শ্রীলঙ্কার মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। সিরিজের প্রথম ওয়ানডে জেতায় অনেকটা এগিয়ে থেকেই এই ম্যাচ খেলতে মাঠে নামবে বাংলাদেশ।

শেষ ওয়ানডে ম্যাচটি হারলেও সিরিজ খোয়াতে হচ্ছে না বাংলাদেশকে। টেস্ট সিরিজের মতো ওয়ানডে সিরিজও ভাগাভাগি করতে হবে শ্রীলঙ্কার সাথে। তবে শ্রীলঙ্কার জন্য বাঁচা মরার লড়াই এটা। হারলেই ২-০ ব্যবধানে সিরিজ জিতে নেবে বাংলাদেশ। যেটা হবে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বাংলাদেশের প্রথম কোনো সিরিজ জয়।

ডাম্বুলাতেই সিরিজ জয়ের উৎসব করতে পারতো বাংলাদেশ। যদিও সেই পথে প্রথম বাধার দেয়াল তোলে শ্রীলঙ্কা। প্রথমে ব্যাট করে ৩১১ রানের বড় সংগ্রহ দাঁড় করায় স্বগতিকরা। দ্বিতীয় বাধাটি বৈরী আবহাওয়ার। বাংলাদেশের যখন বড় লক্ষ্যে ব্যাটিংয়ে নামার প্রস্তুতি নিচ্ছে, তখনই হানা দেয় বৃষ্টি। বৃষ্টি বাগড়ায় শেষপর্যন্ত দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচটি পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয়।

Advertisements