শেষ বিকেলে উইকেট বিসর্জন

তামিম ইকবাল ও সৌম্য সরকারের দারুণ ব্যাটিংয়ে দুরন্ত সূচনা। কোনো উইকেট না হারিয়ে ১০০ ছাড়িয়ে বাংলাদেশ। টেস্টে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে এটাই কম কিসে? সাদা পোশাকে লঙ্কানদের বিপক্ষে এটাই তো বাংলাদেশের সেরা ‘শুরু’। দুই ওপেনারের ব্যাটে রঙিন স্বপ্নই উঁকি দিচ্ছিলো। যদিও দিনশেষে সেটা আর থাকেনি। আফসোস নিয়েই দ্বিতীয় দিনের খেলা শেষ করতে হয়েছে।

গল টেস্টে শ্রীলঙ্কার প্রথম ইনিংসে করা ৪৯৪ রানের জবাবে বাংলাদেশের সংগ্রহ দাঁড়িয়েছে দুই উইকেটে ১৩৩ রান। যদিও প্রথম ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে বিনা উইকেটেই দ্বিতীয় দিন শেষ করতে পারতো বাংলাদেশ। কিন্তু শেষ বিকেলে সবাইকে হতাশায় ডুবিয়ে সাজঘরে ফিরেছেন তামিম। বল না দেখেই দৌড় শুরু করলে রান আউট হয়ে থামতে হয় ৫৭ রান করা বাংলাদেশ ওপেনারকে।

হতাশ করেছেন বাংলাদেশের টেস্ট স্পেশালিস্ট মুমিনুল হকও। তামিমের বিদায়ের পর মুমিমুলও বেশি সময় উইকেটে টিকতে পারেননি। কিছু বুঝে ওঠার আগেই দিলরুয়ান পেরেরার এলবিডব্লিউর ফাঁদে পা দিয়ে থামতে হয় ৭ রান করা মুমিনুলকে। হঠাৎই খেই হারায় বাংলাদেশ। বিনা উইকেটে ১১৮ রান তোলা বাংলাদেশ ১২৭ রানের মধ্যেই হারায় দুই উইকেট।

এরপর আর ঝামেলা হয়নি। অধিনায়ক মুশফিকুর রহিমকে সঙ্গে নিয়ে দিনের বাকিটা সময় পার করে দেন সৌম্য সরকার। টেস্ট মেজাজেই খেলেছেন সৌম্য। অপরাজিত আছেন ৬৬ রানে। সামনে টেস্ট ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরির তুলে নেয়ার হাতছানি। কিপিং ছেড়ে চার নম্বরে ব্যাটিং করতে নামা মুশফিক অপরাজিত আছেন এক রানে। প্রথম ইনিংসে এখনও শ্রীলঙ্কার চেয়ে ৩৬১ রানে পিছিয়ে বাংলাদেশ।

দিনশেষে গল্পটা যেমনই হোক, হয়তো আফসোস নেই বাংলাদেশ দলের। কারণ ৪০ রান পেরনোর আগেই দুই উইকেট খোয়া যেতে পারতো। সৌম্যর যাত্রা থামতে পারতো চার রানেই। ২৮ রান করে তামিমও সাজঘরমূখী হতে পারতেন। বাংলাদেশের দুই ওপেনারই জীবন ফিরে পেয়েছেন। হেলায় হারাননি সুযোগ। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে উদ্বোধনী জুটিতে রেকর্ড ১১৮ রান যোগ করেন তামিম-সৌম্য।

এরআগে চার উইকেটে ৩২১ রান নিয়ে দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরু করা শ্রীলঙ্কা আরও ১৭৩ রান যোগ করে। ডাবল সেঞ্চুরির পথে এগিয়ে যাচ্চিলেন শ্রীলঙ্কার ইনিংসের প্রধান রুপকার কুশল মেন্ডিজ। কিন্তু ১৯৪ রানে মেন্ডিজকে থামান মেহেদী হাসান মিরাজ। এরপর ডিকভেলা ৭৫ ও দিলরুয়ান পেরেরা ৫১ রান করলে শ্রীলঙ্কার প্রথম ইনিংস থামে ৪৯৪ রানে। মিরাজ চারটি উইকেট নেন। এছাড়া মুস্তাফিজ দুটি এবং তাসকিন, শুভাশিষ ও সাকিব একটি করে উইকেট নেন।

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s