বাংলাদেশের বিপক্ষে দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্টে প্রথম দিনের তৃতীয় ও শেষ সেশনে ব্যাট করছে শ্রীলঙ্কা। ৯২ রানে তিন উইকেট হারানোর পর জুটি গড়ে দলকে এগিয়ে নিচ্ছেন তরুণ কুশল মেন্ডিস ও আসিলা গুনারাত্নে। ‘শূন্য’ রানে জীবন পাওয়া মেন্ডিস ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় টেস্ট সেঞ্চুরি উদযাপন করেন।


অবশেষে শ্রীলংকার এ প্রতিরোধ ভেঙ্গেছে তাসকিন। নতুন বল নেয়ার পর তার বলে ইনসাইড এজ হয়ে বোল্ড হন গুনারত্নে। আউটের আগে তিনি করেন ১৪৩ বলে ৮৫ রান। এ রিপোর্ট লেখা অবধি শ্রীলঙ্কার সংগ্রহ ৮৪ ওভার শেষে চার উইকেটে ২৯৬। মেন্ডিস ১৫৪ রানে ব্যাট করছেন।

প্রথম সেশনে ২৪ ওভারে দুই উইকেট হারিয়ে ৬১ রান নিয়ে মধ্যাহ্ন বিরতিতে যায় লক্ষানরা। ষষ্ঠ ওভারের চতুর্থ বলে উপুল থারাঙ্গার (৪) স্ট্যাম্প ভেঙে ব্রেকথ্রু এনে দেন পেসার শুভাশিস। পরের বলেই লিটন দাসের গ্লাভসে ধরা পড়েন কুশল মেন্ডিস। কিন্তু, দুর্ভাগ্য! রিভিউতে পায়ের ‘নো’ বল ধরা পড়ায় আউটের সিদ্ধান্ত ফিরিয়ে নেন আম্পায়ার।

দলীয় ১৫ রানে থারাঙ্গার বিদায়ে মেন্ডিসকে নিয়ে জুটি গড়ে দলকে এগিয়ে নেন ওপেনার করুনারাত্নে। ২৩তম ওভারে দু’জনের ৪৫ রানের পার্টনারশিপ ভাঙেন উঠতি স্পিন অলরাউন্ডার মিরাজ। বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফেরেন করুনারাত্নে (৩০)।

দিনেশ চান্দিমালকে (৫৪ বলে ৫) ফিরিয়ে উইকেট উদযাপনে মাতেন দীর্ঘদিন পর টেস্টে ফেরা মোস্তাফিজুর রহমান। ৯২ রানে তৃতীয় উইকেট হারায় স্বাগতিকরা। ৪০তম ওভারে মেহেদী হাসান মিরাজের হাতে ধরা পড়েন প্রস্তুতি ম্যাচে ভোগানো চান্দিমাল (৫৪ বলে ৫)।

টেস্ট সিরিজ শুরুর আগে দু’দিনের (২-৩ মার্চ) একমাত্র প্রস্তুতি ম্যাচটিতে চোখ ধাঁধানো ব্যাটিংয়ে ১৯০ রানের অপরাজিত ইনিংস উপহার দেন চান্দিমাল।

মঙ্গলবার (৭ মার্চ) গল আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন লঙ্কান দলপতি রঙ্গনা হেরাথ। ইনজুরির কারণে নিয়মিত অধিনায়ক অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস ছিটকে যাওয়ায় দলকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন তিনি।

Advertisements