নিরাপত্তা ঝুঁকিতে নাজুক অবস্থায় পাকিস্তান। কোন দেশ তথা দেশের ক্রিকেটাররা পর্যন্ত পাকিস্তানে গিয়ে ক্রিকেট খেলতে যেতে সাহস পাচ্ছেনা। ঠিক এমন অবস্থাতেই পাকিস্তান ক্রিকেট লিগের (পিএসএল) ফাইনাল লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে আয়োজন করতে যাচ্ছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। দেশে ক্রিকেট ফিরিয়ে আনতে বদ্ধ পরিকর তারা।

এই ফাইনাল খেলতে ইতিমধ্যে নামিদামি সব বিদেশি ক্রিকেটাররাই অস্বীকৃতি জানিয়েছে। ফাইনালের দল কোয়েটার বিদেশি ক্রিকেটার কেভিন পিটারসেন, টাইমল মিলস, লুক রাইটও জানিয়ে দিয়েছেন লাহোরে তারা খেলবেন না। কিন্তু এমন খারাপ অবস্থাতেও বাংলাদেশের এক ক্রিকেটার লাহোরে ফাইনাল খেলতে যাবে বলে জাগো নিউজকে জানিয়েছেন বিসিবি পরিচালক এবং মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস। বিসিবির আরেক পরিচালক আকরাম খান জাগো নিউজকে জানিয়েছেন, জাতীয় দলের সাবেক ওপেনার এনামুল হক বিজয়কে লাহোরে ফাইনাল খেলার প্রস্তাব দেয়া হয়েছে। তারই যাওয়ার সম্ভাবনা বেশি।

সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল এবং মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ এবারের পিএসএল মাতালেও বাংলাদেশ জাতীয় দলের খেলা থাকায় নকআউট রাউন্ডের ম্যাচগুলোতে তাদের পাচ্ছেনা দলগুলো। কিন্তু এদের অনুপস্থিতিতে আরেকজন বাংলাদেশি ক্রিকেটারের লাহোরের খেলতে যাওয়াটা অনেকটা চোখে পড়ার মতই। লাহোরে বিদেশি ক্রিকেটারদের অনুপস্থিতিতে অন্যান্যদের নিয়ে ম্যাচ আয়োজনের চিন্তা করছে আয়োজক কমিটি। তাঁরা ইতিমধ্যে ইতিমধ্যে জানিয়েছে, ফাইনালের দুই প্রতিদ্বন্দ্বী দলের জন্য বেশ কিছু বিদেশি ক্রিকেটার তারা পেয়ে গেছেন। তাদের নিয়ে ফাইনালের আরেক দফা নিলামের আয়োজন করা হবে।

বুধবার রাতে জাগো নিউজের সঙ্গে কথা বলার এক পর্যায়ে বিসিবি মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস বলেন, ‘পিএসএলের ফাইনাল খেলতে লাহোরে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বাংলাদেশের একজন ক্রিকেটারের।’ তবে তিনি নির্দিষ্ট করে কারও নাম বলেননি। সেই একজন হতে পারেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, সাকিব আল হাসান কিংবা তামিম ইকবালের কেউ। কারণ, জালাল ইউনুস বলেছেন জাতীয় দলের একজন।

তবে জালাল ইউনুস কারও নাম উল্লেখ না করলেও এই তিনজনের বাইরে আরেকজনের নাম উঠে এসেছে। তিনি হলেন এনামুল হক বিজয়। বিসিবির ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটির চেয়ারম্যান এবং সাবেক অধিনায়ক আকরাম খান জানিয়েছেন এ তথ্য। তিনি বলেন, ‘পিএসএলের পক্ষ থেকে লাহোরে ফাইনাল খেলার জন্য এনামুল হক বিজয়কে প্রস্তাব দেয়া হয়েছে। সম্ভবত সেই যাচ্ছে লাহোরে পিএসএলের ফাইনাল খেলতে।’

এখন সময় গেলেই আসলে জানা যাবে কে যাচ্ছেন পাকিস্তানের লাহোরে ফাইনাল খেলতে। নাকি আদৌ কেউ যাচ্ছেন না!

Advertisements