বিসিএলে দুর্দান্ত বোলিং করে মুস্তাফিজ নির্বাচকদের স্বস্তি দিয়েছেন বলেই শ্রীলংকার বিপক্ষে টেস্ট স্কোয়াডে তাকে রাখা হয়েছে। এর পরও একটা শঙ্কা ছিল। তবে গতকাল শ্রীলংকা সিরিজের প্রস্তুতি শিবিরের প্রথম দিনে সে শঙ্কার মেঘ অনেকটাই কেটে গেছে বাংলাদেশ দলের স্ট্রেন্থ অ্যান্ড কন্ডিশনিং কোচ মারিও ভিল্লাভারানের কথায়।

সব জল্পনা কল্পনা অবসান ঘটিয়ে শ্রীলংকার বিপক্ষে টেস্টে নামতে মুস্তাফিজ পুরোপুরি প্রস্তুত বলে জানিয়েছেন ভিল্লাভারানে। সকালে জিমে ফিটনেস পরীক্ষার পর এ আশার বাণী শোনান তিনি। বিকেলে একাডেমি মাঠে নেটে পুরোদমে বোলিং করে আত্মবিশ্বাসটা আরও পোক্ত করেছেন কাটার মাস্টার।

মুস্তাফিজকে ‘শতভাগ ফিট’ সার্টিফিকেট দেওয়ার ব্যাখ্যাও দিয়েছেন ভিল্লাভারানে, ‘সে বিসিএল খেলে বোলিং ফিটনেস পুরোপুরি ফিরে পেয়েছে। প্রধান নির্বাচক জানিয়েছেন, বিসিএলে সে দুর্দান্ত বোলিংও করেছে। যেহেতু সে নির্বিঘ্নে ক্রিকেট খেলছে এবং ভালো বোলিং করছে, তাই তার ফিটনেস নিয়ে কোনো শঙ্কা নেই।’

গতকাল জিমে ফিটনেস পরীক্ষায়ও সে ভালো করেছে বলে জানান মারিও, ‘সবকিছু সে স্বাভাবিকভাবেই করেছে। কোনো শঙ্কা নেই। কারণ একবারও না থেমে পুরো সেশনটা সে সাফল্যের সঙ্গে সম্পন্ন করেছে। আর সেশন শেষে সে কোনো কিছু নিয়ে অভিযোগও করেনি।’
তাই বলা যায়, শ্রীলংকা সফরের প্রথম টেস্টে মুস্তাফিজের মাঠে নামা অনেকটাই নিশ্চিত। তাকে নিয়ে শঙ্কার বড় কারণ গত কয়েক মাসের অভিজ্ঞতা। চোট কাটিয়ে প্রায় ছয় মাস পর নিউজিল্যান্ড সফর দিয়ে মাঠে ফিরেছিলেন বাঁহাতি এ পেসার। কিন্তু কিউইদের বিপক্ষে সব ওয়ানডে ও টি২০ খেলতে পারেননি।
পিঠের ব্যথার জন্য তো টেস্ট সিরিজ থেকে নিজেকে সরিয়েই নেন। একই কারণে ভারতের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টেও তাকে রাখা হয়নি। অথচ বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) চিকিৎসক ও ফিজিও মুস্তাফিজের শরীরে কোনো সমস্যা খুঁজে পাননি তখন। তবে তাদের ধারণা, লম্বা ইনজুরি থেকে উঠেছেন বলেই আত্মবিশ্বাসের ঘাটতির কারণে এমনটা হতে পারে। বিসিএল খেলে সেটা কেটে গেছে।
দলের বাকি ক্রিকেটারদের ফিটনেসের অবস্থাও ভালো বলে জানিয়েছেন মারিও, ‘কার ফিটনেস কেমন পর্যায়ে আছে সেটাই আজ (গতকাল) আমি পরীক্ষা করে দেখেছি। যেন শ্রীলংকা সফরের সময় আমি তাদের নিয়ে কাজ করতে পারি। কারণ ফিটনেস নিয়ে কাজ করার জন্য পর্যাপ্ত সময় এখন আমাদের হাতে নেই। সফরের সময় সেটা আমাকে করতে হবে। তবে সবার অবস্থা মোটামুটি ভালোই আছে।’
উল্লেখ্য, লঙ্কান এ ট্রেনারের অধীনে গতকাল সকাল ১০টায় জাতীয় দলের কন্ডিশনিং ক্যাম্পে যোগ দিয়েছেন ১৩ ক্রিকেটার। সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ দুবাইয়ে পিএসএল খেলছেন। এ তিন ক্রিকেটার দুবাই থেকে সরাসরি শ্রীলঙ্কায় দলের সঙ্গে যোগ দেবেন।
Advertisements