বাংলাদেশ সফর শেষেই ইংল্যান্ড গিয়েছিল ভারত সফরে। বাংলাদেশ-ইংল্যান্ড দুই টেস্ট সিরিজে তাই চোখ ছিল ভারতের। ইংল্যান্ডের দুর্বলতাগুলো তো বুঝতে হবে। আর ইংলিশদের সবচেয়ে দুর্বল জায়গাটা দেখিয়ে দিয়েছিলেন আনকোরা এক বোলার। মেহেদী হাসান মিরাজ, দুই টেস্টেই নিয়েছিলেন ১৯ উইকেট। তখন ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস তাদের দীর্ঘ প্রতিবেদনে লিখেছিল, ‘পাশের বাড়ির ছেলেটা ভারতের অনেক বড় উপকার করে দিল’ (বয় নেক্সট ডোর ডাজ ইন্ডিয়া আ বিগ ফেবার)।ভারতের পত্রিকায় ‘মিরাজ’
তখন রবিচন্দ্রন অশ্বিনও মুগ্ধ হয়ে টুইট করেছিলেন, ‘মেহেদী হাসান নামের অফ স্পিনারটা দারুণ।’ অশ্বিন নিজে অফ স্পিনার। এ সময়ের সেরা বোলার। সবখানেই তাঁর দাপট। আর বেশ অভিজ্ঞও। এবার ভারত-বাংলাদেশ টেস্টে অশ্বিন বনাম মিরাজ লড়াইটাও থাকবে। তবে বরাবরই বিনয়ী মিরাজ বলছেন, অশ্বিনের কাছ থেকে টিপস নেবেন ভালো বোলিংয়ের, ‘অশ্বিন বিশ্বমানের খেলোয়াড়। আমার লক্ষ্য থাকবে খেলা শেষে ওর সঙ্গে কথা বলে কিছু টিপস নেওয়ার। আর ও ম্যাচে খেললে কীভাবে বোলিং করছে, তা তো কাছে থেকেই দেখতে পারব। সে অভিজ্ঞতাও আমার জন্য অনেক কাজে লাগবে।’মিরাজকে নিয়ে অশ্বিনের সেই টুইট
মিরাজের জন্য এবারের ভারত সফরটা অন্য রকম এক চ্যালেঞ্জের। নিউজিল্যান্ডের কন্ডিশনে স্বাভাবিকভাবেই নিজেকে পুরো মেলে ধরতে পারেননি। আবার ভারতে নিজের পছন্দের কন্ডিশন পেলেও এমন একটা দলের বিপক্ষে খেলবেন, যাঁরা স্পিনের বিপক্ষে সবচেয়ে ভালো। মিরাজ বলছেন, ‘আমার মনে হয় ভারতে স্পিনাররা সহায়তা পাবে। আমাদের দলে অনেক ভালো অভিজ্ঞ স্পিনার আছে। তাইজুল ভাই আছে, সাকিব ভাই আছে। আর আমিও ভালো করছি। তবে ওখানে আমাদের আরও ধারাবাহিক হতে হবে। ওদের অনেক ভালো ব্যাটসম্যান আছে তবে আমরা যদি ভালো জায়গায় বল করতে পারি তাহলে ভালো কিছু করা সম্ভব।’

Advertisements