ভারত সফরের জন্য ইতোমধ্যে প্রাথমিক দল ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড – বিসিবি। পহেলা ফেব্রুয়ারি দেয়া হবে চূড়ান্ত দলও। জানিয়েছেন বিসিবি’র নির্বাচক হাবিবুল বাশার সুমন। এছাড়া, হায়দ্রাবাদের উইকেট বিবেচনায় নিয়ে সেরা দলই সাজানো হবে বলে জানান তিনি। বিসিবি নির্বাচকের বিশ্বাস, নিউজিল্যান্ড সফরের অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে হায়দ্রাবাদ টেস্টেও ভালো করবেন মুশফিকরা।

১৭ বছর আগে এই ভারতের বিপক্ষেই টেস্ট অভিষেক হয় বাংলাদেশের। তবে, দ্বিপাক্ষিক কোনো আয়োজনে কখনোই ভারতে খেলতে যাবার আমন্ত্রণ পায়নি বাংলাদেশ। সেজন্যই, টাইগার ক্রিকেটের জন্য আসন্ন ভারত সফরের বিশেষত্ব একটু বেশিই। টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষস্থান আর ক্ষমতার বিবেচনায় বিশ্ব ক্রিকেটে ভারতের প্রভাব অনেক বেশি। তাই প্রথম বারের মতো দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলতে যাবার বিষয়টি দেশের ক্রিকেটে যোগ করছে বাড়তি মাত্রা। তাই টাইগারদের চূড়ান্ত দলের সন্নিবেশনটা জানতে মুখিয়ে আছেন সবাই।

এর আগে, হায়দ্রবাদে খেলা ৩ টেস্টের ২টিতে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডকে ইনিংস ব্যবধানে হারিয়েছে ভারত। প্রতিবারই স্বাগতিকদের স্পিন ঘূর্ণিতে ভেঙ্গে চুরমার হয়েছে সফররতদের ব্যাটিং লাইন আপ। কিন্তু, বিসিবি নির্বাচকের মতে, এমন কন্ডিশনে লড়াই করার সামর্থ্য বাংলাদেশের আছে।

বিরাট কোহলি, পুজারাদের নিয়ে ভারতের লম্বা ব্যাটিং লাইন আপ, অশ্বিন-জাদেজাদের বিষ ছড়ানো স্পিন: এমন সব শক্তির দিকগুলো নিয়ে জ্বলে উঠতে হায়দ্রাবাদকে আদর্শ মঞ্চ বানাতেই চাইবে ভারত। কিন্তু, সাম্প্রতিক নিউজিল্যান্ড সফরের অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে, কোহলিদের চ্যালেঞ্জ ছুঁড়বে বাংলাদেশও। এমনটাই মত বিসিবির এই কর্মকর্তার।

Advertisements