দুঃস্বপ্নের নিউজিল্যান্ড সফরে একের পর এক চোট এলোমেলো করে দিয়েছে বাংলাদেশকে। মাশরাফি বিন মুর্তজা, মুশফিকুর রহিম, ইমরুল কায়েস, মুমিনুল হক, মোস্তাফিজুর রহমান—চোটের তালিকা শুধু দীর্ঘই হয়েছে। নিউজিল্যান্ড সফর শেষ। আগামী মাসে ভারতের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টের আগে চোটে পড়া খেলোয়াড়েরা সেরে উঠতে পারবেন তো? বিসিবির চিকিৎসক দেবাশিস চৌধুরীর আশা, আগামী মাসে ভারতের বিপক্ষে বহুল আলোচিত টেস্টের আগেই সেরে উঠবেন মুশফিক-ইমরুলরা।

চোটে পড়ে ক্রাইস্টচার্চ টেস্টে না থাকায় একটু আগেভাগেই দেশে চলে এসেছেন মুশফিক, ইমরুল ও মুমিনুল। তিনজনই দেশে এসে পুনর্বাসনপ্রক্রিয়া শুরুও করে দিয়েছেন। নিউজিল্যান্ড সফরে দুবার চোটে পড়েছেন মুশফিক। প্রথম ওয়ানডেতে রান আউট থেকে বাঁচতে গিয়ে চোট পেয়েছিলেন হ্যামস্ট্রিংয়ে। টেস্ট সিরিজে ফিরলেও ওয়েলিংটনে প্রথম ইনিংসে চোট পান আঙুলে। বাউন্সারের আঘাতে হাসপাতালে পর্যন্ত যেতে হয়েছে তাঁকে।
মুশফিকের চোট নিয়ে দেবাশিস বললেন, ‘আঙুলে চোটের পর অস্ট্রেলিয়াতে এক্স-রে ও সিটি স্ক্যান করা হয়েছে। কোনো চিড় বা ফাটল পাওয়া যায়নি। যেহেতু আঙুলের চোট, ওখানে ব্যথা থাকবে। ওখানে বারবার বলের আঘাত লাগতে পারে বলে শুকাতেও সময় লাগবে। যেহেতু চিড় নেই, ধরে নিচ্ছি ব্যথা কমতে কয়েকটা দিন সময় লাগবে। ভারত টেস্টের আগে পুরোপুরি না হলেও ব্যথা অনেকটা কমে যাবে।’
ওয়েলিংটন টেস্টে বাঁ ঊরুতে চোট পেয়েছিলেন ইমরুল। বাঁহাতি ওপেনারকে নিয়ে ইতিবাচক খবরই শোনালেন বিসিবির চিকিৎসক, ‘ওর ব্যথাটা প্রায় কমে এসেছে। চোটের পর দু সপ্তাহ পেরোয়নি। আমরা ওকে এখনো বিশ্রাম ও কিছু ব্যায়াম দিয়েছি। ফিটনেসের অগ্রগতি দেখতে ৩১ জানুয়ারি আবারও কিছু পরীক্ষা করা হবে।’
নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্টে পাঁজরে আঘাত পেয়েছিলেন মুমিনুল। ভারত টেস্টের আগেই বাঁহাতি টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান সেরে উঠবেন বলেই আশা দেবাশিসের, ‘সে দেশে ফিরে আসার পরে আমরা আবার স্ক্যান করেছি। কোনো চিড় বা গুরুতর কিছু নেই। যেহেতু পাঁজরের ব্যথা, সেরে উঠতে একটু সময় লাগে। কিছু ব্রিদিং ব্যায়াম ও ফিজিও থেরাপি দেওয়া হচ্ছে তাকে। ভারত সিরিজের আগেই আশা করি সেরে উঠবে।’
টি-টোয়েন্টি সিরিজের শেষ ম্যাচে হাত ফাটিয়ে মাশরাফি বিন মুর্তজা নিউজিল্যান্ড ছেড়েছেন গলায় স্লিং বেঁধে। যেহেতু ভারতে কোনো সীমিত ওভারের ম্যাচ খেলবে না বাংলাদেশ, সেরে উঠতে মাশরাফি যথেষ্ট সময় পাচ্ছেন। বিসিবির চিকিৎসকের প্রত্যাশা, মার্চে শ্রীলঙ্কার সফরের আগে প্রস্তুত হবেন বাংলাদেশ ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক, ‘মাশরাফির যে ইনজুরি, ৫-৬ সপ্তাহ সময় লাগে সেরে উঠতে। সে হিসেবে ফেব্রুয়ারির তৃতীয় সপ্তাহ পার হয়ে যাবে। এর পর আমরা স্ক্যান করব। সব ঠিকঠাক থাকলে তার পুনর্বাসনের কাজ শুরু করব। শ্রীলঙ্কা সফরের জন্য তাকে প্রস্তুত করব।’
তবে মোস্তাফিজুর রহমানের কোনো চোট নেই বলেই জানালেন দেবাশিস, ‘মোস্তাফিজের নামটা কিন্তু আমাদের চোটের তালিকায় নেই। আমরা ধরেই নিচ্ছি ওর মারাত্মক চোট নেই।’

Advertisements