আগামী ৯ ফেব্রুয়ারি শুরু হবে ভারতের মাটিতে বাংলাদেশের প্রথম টেস্ট। মুমিনুল হক জানালেন, দলের আর সবার মতো রোমাঞ্চ ছুঁয়ে যাচ্ছে তাকেও।

“কি উইকেট হবে এখনও চিন্তা করছি না। স্পিন ট্র্যাক হলে স্পিন ট্র্যাক হবে বা পেস হলে পেস। আমরা স্পিন ও পেস দুটোর জন্যই পুরোপুরি প্রস্তুতি নিয়ে যাব। এখন অল্প সময়ের মধ্যে নিজেকে তাড়াতাড়ি মানিয়ে নিতে হবে।”

উপমহাদেশের কন্ডিশনের সঙ্গে মানিয়ে নিতে বেশি সময় লাগার কথা নয় বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের। কিন্তু দেড় মাস ধরে অস্ট্রেলিয়া-নিউ জিল্যান্ডে থাকায় ভারত গিয়ে দ্রুত মানিয়ে নেওয়া খুব একটা সহজ হবে না তাদের জন্য। সঙ্গে যোগ হয়েছে, টানা হারের ধাক্কা কাটিয়ে ওঠার চ্যালেঞ্জ।

“নিউ জিল্যান্ডে হারের ধাক্কা কাটিয়ে ওঠা অবশ্যই সম্ভব। চার বছর ধরে জাতীয় দলে খেলি, এই সময়ে দেখেছি, দল যখন খারাপ খেলে তখন সবার মধ্যে ঐক্য আরও দৃঢ় হয়। সেখানে সব ম্যাচ হারার পরও দল ছন্নছাড়া হয়ে যাবে না।”

দলের ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টায় অবদান রাখতে চান মুমিনুল, “প্রতি সফরে যা করতে পারিনি, চেষ্টা করি পরের সিরিজে তা কাজে লাগাতে। ভারতে চেষ্টা করব বড় ইনিংস খেলতে।”

Advertisements