বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড ওয়েলিংটন টেস্টের চার দিন টাইগাররা চালকের আসনে থাকলেও শেষ দিনে এসে আকস্মিকভাবে মারাত্মক ব্যাটিং ব্যর্থতায় হেরে যায় বাংলাদেশ দল। ব্যাটিং স্বর্গ ওয়েলিংটনের উইকেট যেন আচমকাই বদলে যায় পঞ্চম দিনে। এই বদলে যাওয়ার পিছনের কারণ উম্মোচিত হয়েছে। জয়ের জন্য ক্রিকেটের আইন ভেঙ্গেছে কিইউরা!

কালেরকন্ঠের একটি অনুচ্ছেদের মতে, ওয়েলিংটন টেস্ট জয়ের জন্য নিয়ম ভেঙ্গে উইকেটের সাহায্য নিয়েছে নিউজিল্যান্ড। সাধারণত, সব ধরণের ম্যাচ শুরুর আগে দুই দলের অধিনায়ক, কোচ, ম্যানেজারদের নিয়ে সভা করেন সেই ম্যাচের দায়িত্বে থাকা রেফারি। ওয়েলিংটনের বেসিন রিজার্ভে টেস্ট শুরুর আগেও ম্যাচ রেফারির সাথে দুই দলের সভা হয়েছিলো। সেখানে কথা ছিলো, ম্যাচ চলাকালীন পাঁচ দিনে মূল উইকেটের দুই পাশের দুইটি করে উইকেটে পানি দেওয়া হবে না। কেননা, পাশের দুইটি উইকেটে পানি দিলে ম্যাচের উইকেট তা শুষে নিতে পারে; যার ফলে ব্যাটসম্যানদের জন্য তা ভয়ঙ্কর হয়ে উঠতে পারে। তাই, সিদ্ধান্ত নেয়ে হয়েছিলো কোনো প্রকারের পানি দেয়া হবে না।

তবে বাংলাদেশ দলের একটি সূত্রের মতে, “চতুর্থ দিন খেলার পর মূল উইকেটের পাশেরটিতে পানি দিয়েছেন কিউরেটর। আমাদের কোচ চান্ডিকা হাথুরুসিংহে সে দৃশ্য মোবাইলে ধারণও করেছেন।” ঘটনাটি আড়ালে ঘটলেও বাংলাদেশের কোচ হাথুরুসিংহে জানিয়েছেন, “অবাক করা কাণ্ড হলো নিউজিল্যান্ড কোচ মাইক হ্যাসনকে দেখেছি কিউরেটরের সঙ্গে কথা বলতে। আর তিনি মাঠ ছাড়ার মিনিট পাঁচেক পরেই পানি দেওয়া শুরু করেন কিউরেটর।”


তবে উইকেটে পানি দেয়ার ঘটনাটি ঘটেছে রিজার্ভ আম্পায়ার ক্রিস্টোফার মার্ক ব্রাউনের চোখের সামনেই। সেটিও নাকি মোবাইলে ধারণ করেছেন বাংলাদেশ কোচ। পুরো বিষয়টি ম্যাচের দায়িত্বে থাকা আইসিসির সদস্যদের অবগত করেছিলেন কোচ। সকল সাক্ষ্য-প্রমাণ নিয়ে সেদিন সন্ধ্যায় ম্যাচ রেফারি জাভাগাল শ্রীনাথের কাছে অভিযোগ করেন হাথুরুসিংহে। তবে কাজের কাজ কিছু হয় নি।

টেস্টের ৫ম দিনে পিচ হয়ে উঠে ভয়ানক। ফলাফল অল্পতেই গুটিয়ে যায় বাংলাদেশ। তবে ক্রিকেটারদের দৃঢ় বিশ্বাস, “উইকেটে পানি দেওয়ার ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে পঞ্চম দিনে ম্যাচটাই বাতিল হতে পারত, যদি ভুক্তভোগী হতো ক্রিকেট রাজনীতির শক্তিধর কোনো দল। “ দল হিসেবে বাংলাদেশ পরিণত হলেও ভালো ক্রিকেট রাজনীতির শক্তিশালী দল হিসেবে এখনো ছোটই রয়ে গেছে বাংলাদেশ।

অন্যদিকে, জেতার জন্য উইকেটে পানি দেয়ার চক্রান্ত, কিইউদের দিকে সবার নজরকে স্বাভাবিকভাবেই বদলে দিবে।

Advertisements