প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট দিয়ে যাত্রা শুরু করেছিলেন ২০০০ সালে। মাত্র দুই বছরের ব্যবধানে ডাক পেয়ে যান জাতীয় দলেও। জাতীয় দলের হয়ে কয়েক বছর নিয়মিত খেললেও কালের স্রোতে হারিয়ে যেতে বসেছেন প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে হ্যাটট্রিক করা অলক কাপালি।

জাতীয় দলের হয়ে সর্বশেষ খেলেছিলেন ২০১১ সালে পাকিস্তানের বিপক্ষে। এরপর আর লাল-সবুজ জার্সি গায়ে তোলা হয়নি। তবে এখনও স্বপ্ন দেখেন জাতীয় দলে ফেরার। বিশ্বাস করেন ভালো করতে পারলে অবশ্যই জাতীয় দলে ফেরা সম্ভব। এক্ষেত্রে বয়সকে বাঁধা হিসাবে মানতে রাজি নন অলক কাপালি। ঘরোয়া ক্রিকেটে ভালো করেই জাতীয় দলে ফিরতে চান তিনি।

এ প্রসঙ্গে প্রিয়.কমকে তিনি বলেন, ‘দল এখন অনেক ভালো খেলছে। আমি যেখানে ব্যাটিং করি সেখানে ব্যাট করার মতো দলে নিয়মিত ক্রিকেটার আছেন। চেষ্টা করছি প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ভালো করার। আমার লক্ষ্য, আমি আমার খেলাটা ভালো খেলে যাবো। সামনে যত ম্যাচ পাবো ভালো করার চেষ্টা করবো। পারফরম্যান্স ভালো হলে অবশ্যই দলে ডাক পাবো।’

এদিকে জাতীয় দল থেকে কার্যত ছিটকে পড়ার জন্য নিজের অনভিজ্ঞতাকে দায়ী করছেন ৩৩ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার। তিনি বলেন, ‘জাতীয় লিগ শুরু করার অল্প দিনের মধ্যে জাতীয় দলে ডাক পেয়েছিলাম। জাতীয় লিগে ভালো করেছিলাম বলেই হয়তো জাতীয় দলে সুযোগ পেয়েছি। তখন আসলে ততটা অভিজ্ঞ ছিলাম না। তাই সেখানে নিজেকে সেভাবে কাজে লাগাতে পারিনি। জাতীয় দলে ডাক পাওয়ার আগে দুই তিন বছর ঘরোয়া ক্রিকেট খেলতে পারলে আমার জন্য আরও ভালো হতো।’

Advertisements