এমআরএফ টায়ার্স আইসিসি টেস্ট র‍্যাংকিংয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দলকে পিছনে প্রথমবারের মতো র‍্যাংকিংয়ের অষ্টম স্থানে ওঠে আসার হাতছানি মুশফিক-সাকিবদের সামনে। আসন্ন নিউজিল্যান্ড সফরে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজেই এ সুযোগকে বাস্তবে রুপ দেওয়ার সুযোগ পাচ্ছেন মুশফিকবাহিনী।

আইসিসি র‍্যাংকিংয়ে ৬৫ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে বাংলাদেশ জাতীয় দলের অবস্থান এখন নবমস্থানে। ঠিক চার পয়েন্ট বেশি নিয়ে তাদের উপরে অবস্থান ওয়েস্ট-ইন্ডিজের। স্বাগতিক নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলবে টাইগাররা।

এ সিরিজে ২-০ ব্যবধানে জিততে  পারলে এক লাফে টাইগারদের রেটিং পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়াবে ৭৯! শুধু তাই নয় ২-০ ব্যবধানে সিরিজ না জিতে যদি টাইগাররা ১-০ ব্যবধানেও সিরিজ নিজেদের করে নেয় সেক্ষেত্রে তাদের রেটিং পয়েন্ট বাড়বে ১১ যার ফলে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে পিছনে ফেলে নিজেদের ক্রিকেট ইতিহাসে প্রথমবারের মতো টেস্ট র‍্যাংকিংয়ের অষ্টমস্থানে ওঠে আসবে বাংলাদেশ। যদি সিরিজ জয় সম্ভব না তাহলেও র‍্যাংকিংয়ে উপরে ওঠার সুযোগ থাকছে সাদা পোশাকের বাংলাদেশের। সেক্ষেত্রে সবাওতিক ব্ল্যাক ক্যাপসদের বিপক্ষে সিরিজ ড্র করতে হবে টাইগারদের। কেননা, সিরিজটি ১-১ ব্যবধানে ড্র করতে পারলে ৫ পয়েন্ট যুক্ত হবে টাইগারদের রেটিংয়ে যা কিনা ওয়েস্ট-ইন্ডিজকে র‍্যাংকিংয়ে পিছনে ফেলার জন্য যথেষ্ট।

তবে যদি প্রেক্ষাপট ভিন্ন হয় তবে ঘুরে যেতে পারে চিত্ররেখাও। কারণ, বাংলাদেশ ২-০ ব্যবধানে সিরিজ হারলে সেক্ষেত্রে ৩ রেটিং পয়েন্ট হারাতে হবে টাইগারদের। অন্যথায় ১-০ ব্যবধানে সিরিজ হারলে মুশফিকদের রেটিং ৬৫ পয়েন্টেই অপরিবর্তিত থাকবে।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ ও নিউজিল্যান্ডের মধ্যকার দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ ১২ জানুয়ারি থেকে শুরু হবে। সিরিজের শেষ টেস্ট ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে ক্রাইস্টচার্চে ২০ জানুয়ারি থেকে।

Advertisements