ওপেনিং জুটি নিয়ে চিন্তিত টাইগাররা

ওপেনিং জুটি নিয়ে টাইগার থিংক ট্যাংকের ভাবনার শেষ নেই। তামিম ইকবাল স্থায়ী হলেও বাকিরা ছিলেন আসা-যাওয়ার মধ্যে। গত দশ বছরে ইমরুল-জুনায়েদ-নাফিস থেকে শুরু করে হালের সৌম্য কেউই ধারাবাহিক হতে পারেননি। টাইগারদের দুই সাবেক ওপেনারের মতে, ক্রিকেটারদের পর্যাপ্ত সময় না দেয়ায় ওপেনিং জুটি নিয়ে এখনও ধুঁকছে বাংলাদেশ।

শাহরিয়ার হোসেন বিদ্যুৎ বাংলাদেশের ক্রিকেটে এসেছিলেন ধুমকেতুর মতো। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বাংলাদেশ যখন হাঁটি হাঁটি পা করছে তখন ওপেনিংয়ে দলের ভরসা ছিলেন বিদ্যুৎ। ক্যারিয়ারে সেঞ্চুরি আসেনি পাঁচ রানের আক্ষেপে প্রথম ওডিআই সেঞ্চুরি হাতছাড়া হয়েছিলো। এরপর দেশের ক্রিকেটে আক্ষেপ বাড়িয়েএ নিজেই কদিন ক্রিকেট বিদায় বলে দেন মাত্র ২৮ বছর বয়সে।
বাংলাদেশের ক্রিকেটে এখনো অক্ষুণ্ন আছে মেহরাব হোসেন অপি শাহরিয়ার হোসেন বিদ্যুৎতের ১৭০ রানের ওপেনিং জুটি। ১৭ বছর আগের রেকর্ডটা এখনো বাংলাদেশের সর্বোচ্চ।
সাকিব, মুশফিক, মাহমুদুল্লাহরা বাংলাদেশের মিডল অর্ডারকে শক্তিশালী করেছেন। কিন্তু ওপেনিং স্লট মজবুত হয়নি। গত এক দশকে ওপেনিংয়ে বাংলাদেশকে সার্ভিস দিচ্ছেন তামিম কিন্তু অন্য প্রান্তে স্থায়ী হননি কেউই। ২০১৬তে এসেও তামিমের যোগ্য সঙ্গির মাথা ঠুঁকে মরছে বিসিবি।
বাংলাদেশের পরবর্তী অ্যাসাইনমেন্ট নিউজিল্যান্ড। এই দলটার সাথে আছে চার ওপেনার। তামিমের পার্টনার কে হবেন সেটা নিয়ে চান্ডিকার ভাবনার শেষ নেই। অস্ট্রেলিয়ায় দুই প্রস্তুতি ম্যাচে ইনিংস বড় করতে পারেননি ইমরুল-সৌম্য। তারপরও কিউই কন্ডিশনে উত্তরসূরীদের উপর ভরসা রাখছেন বিদ্যুৎ।

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s