আগামী ২০ ডিসেম্বর থেকে শুরু হচ্ছে অস্ট্রেলিয়ার ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি লিগ বিগ ব্যাশ টুর্নামেন্ট। টুর্নামেন্টের প্রথম আসরের শিরোপা জয়ের পর চার মৌসুম শিরোপার স্বাদ পায়নি সিডনি সিক্সার্স। আসন্ন আসরে শিরোপা জয়ের মিশনে নামছে সিডনির দলটি। এরই প্রস্তুতি হিসেবে বুধবার বাংলাদেশ জাতীয় দলের বিপক্ষে খেলেছে একটি প্রস্তুতি ম্যাচ।

যদিও এই ম্যাচে বিসিবি একাদশের বিপক্ষে সাত উইকেটের বড় হারের স্বাদ পেতে হয়েছে সিডনি সিক্সার্সকে। তবে বিগ ব্যাশ  শুরুর আগে মাশরাফি-মুশফিকদের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলতে পেরে নিজেদের ভাগ্যবান বলেই মানছেন সিডনি সিক্সার্সের উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান রায়ান কার্টার। সেইসঙ্গে মাঠে বিপুলসংখ্যক বাংলাদেশি সমর্থকের উপস্থিতিরও প্রশংসাও ঝড়লো তার কণ্ঠে।

ম্যাচ পরবর্তী এক সাক্ষাৎকারে সিডনি সিক্সার্সের এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান বলেন,‘আন্তর্জাতিক একটি দলের বিপক্ষে খেলতে পেরে আমরা ভাগ্যবান। আমাদের এখন প্রস্তুতি চলছে। আজ নর্থ সিডনি ওভালে প্রচুর দর্শকের উপস্থিতি ছিল। অধিকাংশই বাংলাদেশকে সাপোর্ট করেছে। তবুও বিপুল পরিমাণ দর্শকের সামনে খেলতে পেরে সত্যিই ভালো লেগেছে।’

সিডনি সিক্সার্সে বিপক্ষে বিসিবি একাদশের প্রস্তুতি ম্যাচে বাংলাদেশি দর্শকদের উপস্থিতি। ছবি: সিডনি সিক্সার্স

নর্থ সিডনির ওভালে এই প্রস্তুতি ম্যাচে আগে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেটে ১৬৯ রান তুলে সিডনি সিক্সার্স। বাংলাদেশের সৌম্য সরকার একাই তুলে নেন তিন উইকেট। এরপরই হানা দেয় বৃষ্টি। তাই বিসিবি একাদশের ইনিংস কমিয়ে আনা হয় আট ওভারে। আট ওভারে মাশরাফি, মুশফিক ও মাহমুদউল্লাহদের নতুন টার্গেট দাঁড়ায় ৮৪। যে রান তিন উইকেট হারিয়ে হেসে-খেলেই তুলে নেয় বিসিবি একাদশ।

২৬ বছর বয়সী রায়ান কার্টার উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান হলেও নর্থ সিডনির ওভালে এই প্রস্তুতি ম্যাচে আজ বাংলাদেশের বিপক্ষে দুই ওভার বোলিং করেছেন। ২৬ রানের বিনিময়ে ডানহাতি এই স্পিনার তুলে নিয়েছেন বাংলাদেশের সাব্বির রহমানের উইকেটটিও। ১৬ ডিসেম্বর হংকংয়ের বিপক্ষে শেষ প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে তার দল সিডনি সিক্সার্স।

Advertisements