অস্ট্রেলিয়ায় ‘অরিজিন ক্রিকেট কাপ’ টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে প্রবাসী বাংলাদেশিদের ক্লাব ‘পাওয়ার সোর্স’।

রোববার সিডনিতে অনুষ্ঠিত ব্ল্যাকটাউনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট মাঠে অনুষ্ঠিত দিবা-রাত্রির ফাইনালে তিন বারের ফাইনালিস্ট প্রবাসী আফগানিস্তানিদের দল হাজারা স্টার্সকে সাত উইকেটে পরাজিত করে পাওয়ার সোর্স।

সিডনির গ্রুপ পর্যায়ে একের পর এক জয়ে মাল্টি কালচারাল ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনালে উঠে আসে ‘পাওয়ার সোর্স’ ক্রিকেট ক্লাব।
মূলত ক্রিকেটের মাধ্যমে অস্ট্রেলিয়ার মাল্টিকালচারাল কমিউনিটির মধ্যে সম্পর্ক উন্নয়নে ২০১৪ সাল থেকে আয়োজন করা হচ্ছে অরিজিন ক্রিকেট কাপ। পাশাপাশি মাঠ পর্যায় থেকে বর্তমান ও আগামী প্রজন্মের ক্রিকেটার খোঁজার কাজও করছে অরিজিন।

দিবারাত্রির ফাইনাল ম্যাচে টসে জিতে, ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় গতবারের চ্যাম্পিয়ন হাজারা স্টার্স। প্রথম ওভারেই হ্যাটট্রিক করেন সিলেটের হয়ে প্রথম বিভাগে খেলা নাসির হোসাইন। তার ১২ রানে ৫ উইকেট শিকারের দিনে ৭৭ রানে থেমে যায় হাজারা স্টার্সের ব্যাটিং রথ।

বিপরীতে মাত্র তিন উইকেট খুঁইয়ে, লক্ষ্যে পৌঁছে ‘পাওয়ার সোর্স’। ১২ ওভারে ৮১ রান সংগ্রহে জয় নিশ্চিত করে তারা। দলের হয়ে রিয়াদ ২২ আর মাশরুর সর্বোচ্চ ২৫ রান করেন। মাল্টি কালচারাল ক্রিকেটের এই টুর্নামেন্টে এবারই প্রথম চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে বাংলাদেশি কোন ক্লাব। আনন্দময় এ মুহূর্ত ছুঁয়ে যায় স্টেডিয়ামে উপস্থিত সবাইকে।

‘জয়ের পেছনে টিমস্পিরিটই মূলমন্ত্র’ বললেন, জয়ী দলের অধিনায়ক মোদাচ্ছের রাব্বানি। তবে, নাসির হোসাইনের অনবদ্য ইনিংসের প্রশংসায় পঞ্চমুখ ছিলেন তিনি। ছোটখাটো দুর্বলতা কাটিয়ে, আগামী বছরও শিরোপা ধরে রাখার প্রত্যয় মোদাচ্ছের রাব্বানির।
যোগ্য দল হিসেবেই পাওয়ার সোর্সের প্রশংসা করলেন, রানার্স আপ দলের অধিনায়ক মূসা আলী। বললেন, প্রথম ওভারেই, খেলার মোড় ঘুরিয়ে দেন নাসির হোসাইন। অরিজিন ক্রিকেট টুর্নামেন্টকে আরো বড় পরিসরে পৌঁছে দিতে যথাযথ কর্তৃপক্ষের সহায়তাও চান তিনি।

লীগ পর্যায়ের ম্যাচেও পাওয়ার সোর্সের কাছে পরাজিত হয়েছিল হাজারা স্টার্স।

১৮টি দলের অংশগ্রহণে অরিজিন ক্রিকেট টুর্নামেন্টের এটি ছিল তৃতীয় আসর। অস্ট্রেলিয়ার মত মাল্টি কালচারাল সোসাইটিতে এ ধরণের আয়োজনকে ‘সাধুবাদ’ জানান আমন্ত্রিত অতিথিরা।

অস্ট্রেলিয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশ কনস্যুল জেনারেল অ্যান্থনি কুরি তার প্রতিক্রিয়ায় বলেন, “এটা ভালো লাগছে যে বাংলাদেশ জয়ী হয়েছে। আশা করি, বাংলাদেশি বংশোদ্ভূতরা আরো বেশি সংখ্যায় অংশ নিবে খেলাধুলায়।”
অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথিদের মধ্যে আরও ছিলেন, অরিজিন ক্রিকেটের ফাউন্ডার মাহিন আবেদীন, বঙ্গবন্ধু কাউন্সিল অস্ট্রেলিয়ার সভাপতি শেখ শামীমুল হক, ক্রীড়া ব্যক্তিত্ব কামিল খান, কিংসগ্রোভ স্পোর্টস অ্যাকাডেমির ব্যবস্থাপনা পরিচালক হ্যারি সোলোমন এবং এবিএসসিএ এর চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম।

আগামী বছরের ফেব্রুয়ারিতে অনুষ্ঠিত হবে, এ টুর্নামেন্টের অ্যাওয়ার্ড নাইট। ফাইনালের ম্যান অব দ্য ম্যাচ নাসির হোসাইনের হাতেই উঠছে ‘বেস্ট বোলার অ্যাওয়ার্ড’। টুর্নামেন্টে ১৯ উইকেট নিয়ে বোলারদের শীর্ষেই রয়েছেন তিনি ।

কার্টেসী : বিডি নিউজ ২৪ ডট কম

Advertisements