বিপিএলের সময় হোটেল কক্ষে নারী অতিথি ডেকে নিয়ে গিয়ে বড় শাস্তির মুখোমুখি হয়েছেন সাব্বির রহমান ও আল আমিন হোসেন। ব্যাপারটিকে ‘গুরুতর শৃঙ্খলাবহির্ভূত’ কাজ আখ্যা দিয়ে বিশাল অঙ্কের জরিমানা করা হয়েছে এ দুজনকে। দুজনের মিলিত জরিমানার অঙ্ক ২৫ লাখ টাকা। কিন্তু বার্তা সংস্থা পিটিআইয়ের একটি সংবাদে জানা গেছে, এবারের বিপিএলে একই ‘অপরাধ’ করে পার পেয়ে গেছেন পাকিস্তানের একজন ক্রিকেটার। সাব্বির, আল আমিনকে শাস্তি দেওয়া হলেও সেই পাকিস্তানি ক্রিকেটারের ব্যাপারে নিশ্চুপ থেকেছে বিপিএলের গভর্নিং কাউন্সিল।

পিটিআই অবশ্য সেই পাকিস্তানি ক্রিকেটারের পরিচয় প্রকাশ করেনি। তবে তিনি পাকিস্তানের বর্তমান জাতীয় দলের সদস্য বলে উল্লেখ করেছে। চট্টগ্রামে নিজের হোটেল কক্ষে ওই ক্রিকেটার একজন নারী অতিথিকে নিয়ে গিয়েছিলেন বলে জানিয়েছে পিটিআই। তাঁর শাস্তি না হলেও ফ্র্যাঞ্চাইজি অবশ্য শেষ পর্যন্ত তাঁকে দেশে ফেরত পাঠিয়ে দিয়েছিল।
বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল থেকে খেলোয়াড়দের নির্দিষ্ট করেই নারী অতিথিদের ব্যাপারে সতর্ক করে দেওয়া হয়েছিল। পাকিস্তানি ক্রিকেটার যে নারীকে নিজের কক্ষে নিয়ে গিয়েছিলেন, সেই নারী ছিলেন একজন বিদেশি নাগরিক। নিজস্ব সূত্রের বরাত দিয়ে পিটিআই জানিয়েছে, প্রথম থেকেই সেই নারীকে চোখে চোখে রেখেছিলেন বিপিএলের দুর্নীতি বিরোধী কর্মকর্তারা। পাকিস্তানি ক্রিকেটারকে হাতেনাতে ধরে নিরাপত্তা কর্মীরা নারীকে হোটেল কক্ষ থেকে বেরিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছিল।
সূত্রের বরাতে পিটিআই লিখেছে, পুরো বিষয়টিই পরে ধামাচাপা দেওয়া হয় শীর্ষ ক্রিকেট কর্তাদের হস্তক্ষেপে। তবে সেই পাকিস্তানি ক্রিকেটারের আচার-আচরণ নাকি ছিল যথেষ্ট আপত্তিকর। বিদেশি ক্রিকেটার বলেই তাঁকে শাস্তি দেওয়া যায়নি বলে জানিয়েছে সেই সূত্রটি।
এবারের বিপিএলে খেলার জন্য মোট ১৮ জন পাকিস্তানি ক্রিকেটারকে পিসিবির পক্ষ থেকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়।

Advertisements